পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/২৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ঐরামকৃষ্ণ ও পরোপকার , WC2 “তাই জীবের কৰ্ত্তব্য কি ? আর কি, তার শরণাগত হওয়া, আর তাকে যাতে লাভ হয়, দর্শন হয়, সেইজন্ত ব্যাকুল হয়ে তার কাছে প্রার্থনা করা।” [ ঈশ্বরই বস্তু আর সব অবস্তু ] “শন্তু বলেছিল, আমার ইচ্ছা যে, খুব কতকগুলো ডিসপেনসারী, হাসপাতাল ক’রে দিই, তাহ’লে গরীবদের অনেক উপকার হয়। আমি বললুম, ই, অনাসক্ত হয়ে যদি এ সব করো, তো মন্দ নয়। তবে ঈশ্বরের উপর আন্তরিক ভক্তি না থাকলে অনাসক্ত হওয়া বড় কঠিন। আবার অনেক কাজ জড়ালে কোন দিক থেকে আসক্তি এসে পড়ে, জানতে দেয় না। মনে ক’রছি নিষ্কামভাবে করছি, কিন্তু হয় ত যশের ইচ্ছা হয়ে গেছে, নাম বার করবার ইচ্ছা হ’য়ে গেছে। আবার বেশী কৰ্ম্ম করতে গেলে, কৰ্ম্মের ভিড়ে ঈশ্বরকে ভুলে যায়। আরো বল্লুম, শম্ভু ! তোমাকে একটা কথা জিজ্ঞাসা করি, যদি ঈশ্বর তোমার সম্মুখে এসে সাক্ষাৎকার হন, তা হলে তুমি তাকে চাইবে, না, কতকগুলো ডিসপেনসারী বা হাতপাতাল চাইবে ? তাকে পেলে আর কিছু ভাল লাগে না। মিছরির পান। পেলে আর চিটে গুড়ের পানা ভাল লাগে না ।” هویت = “যারা হাসপাতাল ডিসপেনসারী করবে, আর এতেই আনন্দ করবে, তারাও ভাল লোক ; কিন্তু থাক আলাদা। যে শুদ্ধ ভক্ত, সে ঈশ্বর বই আর কিছু চায় না ; বেশী কৰ্ম্মের ভিতর যদি সে পড়ে, সে ব্যাকুল হয়ে প্রার্থন করে, হে ঈশ্বর, কৃপা ক’রে আমার কৰ্ম্ম কমিয়ে দাও ; তা না হ’লে যে মন তোমাতেই নিশিদিন লেগে থাকবে, সেই মন বাজে খরচ হয়ে যাচ্ছে ; সেই মনেতে বিষয় চিন্তা করা হচ্ছে। শুদ্ধ ভক্তির থাক একটি আলাদা থাক । ঈশ্বর বস্তু আর সব অবস্তু, এ বোধ না হ'লে শুদ্ধ ভক্তি হয় না। এ সংসার অনিত্য, দুদিনের জন্ত, আর এ সংসারের যিনি কৰ্ত্তা, তিনিই সত্য, নিত্য ; এ বোধ না হ’লে শুদ্ধ ভক্তি হয় না।

  • জনকাদি প্রত্যাদিষ্ট হয়ে কৰ্ম্ম করেছেন।”