পাতা:শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত পঞ্চম ভাগ.djvu/২৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সুরেন্দ্রের বাড়ীতে শ্রীরামকৃষ্ণের শুভাগমন २१é এদিকে ঘরের মধ্যে ত্ৰৈলোক্য গান গাহিতেছেন। ঐরামকৃষ্ণ মাতোয়ার হইয়া নৃত্য করিতেছেন। যে মালা ফেলিয়া দিয়াছিলেন, সেই মালা তুলিয়া গলায় পরিলেন। এক হাতে মালা ধরিয়া, অপর হাতে দোলাতে দোলাতে গান ও নৃত্য করিতেছেন – হৃদয় পরশ মণি আমার— · আঁখির দিতেছেন— ( ভূষণ বাকি কি আছে রে!) ( জগৎ-চজ-হার পরেছি । ) সুরেন্দ্র আনন্দে বিভোর—ঠাকুর গলায় সেই মালা পরিয়া নাচিতেছেন । মনে মনে বলিতেছেন ভগবান দর্পহারী। কিন্তু কাঙ্গালের আকিঞ্চনের ধন । ত্রীরামকৃষ্ণ নিজে গান ধরিলেন— যাদের হরি বলিতে নয়ন ঝুরে, তারা তারা দুভাই এসেছে রে । ( যারা মার খেয়ে প্রেম যাচে ) ( যারা আপনি মেতে জগৎ মাতায় ) ( যারা আচণ্ডালে কোল দেয় ) (যারা ব্রজের কানাই বলাই ) । অনেকগুলি ভক্ত ঠাকুরের সঙ্গে নৃত্য করিতেছেন। সকলে উপবিষ্ট হইলেন ও সদালাপ করিতেছেন । ঐরামকৃষ্ণ মুরেন্দ্রকে বলিতেছেন, আমায় কিছু খাওয়াবে না ? এই বলিয়া গাত্ৰোখান করিয়া অন্তঃপুরে গমন করিলেন। মেয়ের আসিয়া সকলে ভূমিষ্ট হইয়া অতি ভক্তিভরে প্রণাম করিলেন। আহারাস্তে একটু বিশ্রাম করিয়া দক্ষিণেশ্বর যাত্রা করিলেন।