পাতা:শ্রীশ্রীহরি লীলামৃত.djvu/১২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


अजैइतीिगारुड। ঠাকুর বলেন বাছা তুমি যাও ঘরে। . তুমি যাও এবে আমি যাব তার পরে। - ঠাকুরে প্রণাম করি গোলোক উঠিল। , , হরিধ্বনী দিয়া গৃহে হাটিয়া চলিল ॥ সভাতে যতেক লোক ছিলেন বসিয়া। " সবে করে হরিধ্বনী আশ্চৰ্য্য মানিয়া । ঘরে ঘরে হুলুধ্বনী করে রামাগণে । গোলোক উদ্ধার হ’ল কহে সৰ্ব্বজনে ॥ । গোলোক হইল ঠাকুরের প্রিয় ভক্ত । পাশরিতে নারে গুণ সদা করে ব্যক্ত ॥ ~ দিব বিভাবী হরিনাম সংকীৰ্ত্তন। রহিচাদ প্রতে হরি বলে সৰ্ব্বজন হরিচাদ ল’য়ে যত ভক্তগণ সাথে : মাঝে মাঝে যান সেই গোলোকের বাড়ীতে । মহানন্দ চিদানন্দ সৌর কর রাশী। দিবানিশী সমভতি গার্হস্থ সন্ন্যাসী ॥ ঐঐরি লীলামৃত পদ্ম প্রস্ফুটিত । ভক্ত বৃন্দ মধু পিয়ে হয়ে হরৰ্ষিত : রলীলা পদ্মমধু পিয়ে সৰ্ব্বজীবে। রুসনাবাসনা হরি হরি বল সবে ॥ ; বিধব রমণীর বারিপ পৈশাচিক দৃষ্টিমোক্ষণ। i |.. -একা প্রভুকে দেখি ধাইয় প্রধাম । অপরাহু সময়ে বিদায় হইলাম ॥: ... . আমি আর মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বাস দ্বজন। তিলছড়া গ্রামেতে করিমু আগমন ॥ উতরিতু শ্ৰীনবীন বিশ্বাসের বাড়ী। : তিনি রাথিলেন বড় সমাদর করি ॥ আমাদের সংবাদ পাইয়া একনারী। ১নবীনের বাটতে আসিল ত্বর করি। : সমস্ত রজনী হরিনাম সংকীৰ্ত্তন। সেই নারী বিষাদিত মলিন বদন। - নাহি আর অন্তকথা করেছে রোদন। গোস্বামীর পদে মাথা কুটিছে কখন ॥ একবার দুই হাতে দুটি পদধরে । কতক্ষণ রাখিলেন বক্ষের উপরে। ঠা বাঁহী ইক্ষ্ম দয়াকরে তা শেষকালে যা "কু তা-ই - ੋ 驚 * প্রণয়ী প্রণামী দিয়া পঞ্জি ধ > পাঁচাকে # যাস ওঢ়াকাদি , , o, পয়ার । : , ،بی تر - হরিচাদ উদেশে থাকিয় । বহু নিশী জাগরণে করিল। চারিদণ্ড রজনী অtছয় হেনকালে। হরিনাম সংকীৰ্ত্তন সবে ক্ষান্ত দিলে। সকলেকে শয্যা দিয়া শুইল গোসাই। এক সেই দুঃখিনীর চক্ষে নিদ্রা নাই ॥ হেন অবকাশে সেই নারী কঁদে খেদে ৷ ধরিলেন মৃত্যুঞ্জয় গোস্বামীর পদে • অনাথ বিধবা আমি দুঃখিনী যুবতী। ধরিপায় সদুপায় কর মহামতি ॥ জলোদরী বেয়ারাম হয়েছে আমার* দুঃখিনীরেকর এই রোগে প্রতিকার ॥ মৃত্যুঞ্জয় বুলে আমি উপায় নদেখি।" কৰ্ম্মফল ফলিয়াছে আমি ক প্রভাতে উঠিয়া মোরা যাই ট সে নারী কুঁদিয়া ধরে গোস্বামীক্টায় তারক কহিছে আর সহেন পরাণে । তুচ্ছ ব্যান্ত্রি জন্য এত নিষ্ঠুরতা কেনে মহাপ্রভু পদে পড়ে কর কাদা কাদি। - সেই নারী তাহ শুনি গিয়া নিজধাম । নিশী জাগরণে জপে হরিচাঁদ নাম ॥ কেমনে পাইব আমি প্রভুর চরণ। . বিনা সাধনার নাহি পাব দরশন প্রাতে উঠি একদিন মনে কৈল যুক্তি। এ বিপদে হরিপদ বিনে নাহি মুক্তি। আমা হতে নাহি হ’বে সাধন ভজন। ভরসা প্রভুর নামঃপতিত পাবন . ওঢ়াকাদি গেলামী কাদিতে কঁাদিতে , দেখে এক বসে প্রভু পুকুর পাড়ীতে " " পাচশিকা জরিমান রেখে পদ পরে। , প্রণাম করিয়া নারী হরিপদে পড়ে।" প্রভু দেখে পেটে ব্যাধি নহে কদাচন “পৈশাচিক” দৃষ্টি যেন উদরী লক্ষণ ॥ দণ্ডবৎ করি যবে পদে পড়িল, দয়াকরি পাদপদ্ম মস্তকেতে দিল 3.