পাতা:শ্রীশ্রীহরি লীলামৃত.djvu/১৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


+

সবে মিলে পাগলের বিক্রম দেখিয়া । ভ্রান্তিতে গিয়াছে সবে সংজ্ঞ হারাইয় ॥ সিংহনাদ সিংহবীৰ্য্য গর্জিছে পাগল। জয় হরি বলরে গৌর হরি বল ॥ মদনের ভগিনী মহিমা নাম ধরে। তার কণ্ঠস্বর যেন অমৃত নিক্ষরে ॥ পাগল উন্মত্ত হ’য়ে করে হরি নাম । বেড়াপাক কীৰ্ত্তন যেমন ক্ষেত্র ধাম ॥ দলে দলে মহাপ্রভু নাচি ত যেমন । তেমনি গোলোক চন্দ্র করিছে ভ্রমণ ॥ এক এক বার যবে দিতেছেন লম্ম । তিন চারি বাড়ি কাপে যেন ভূমিকম্প ॥ পাগলের প্রতি কাৰ্ত্তিকের বড় আৰ্ত্তি। দৈবে পাগলের দেখে হনুমান মূৰ্ত্তি ॥ লম্ফ দিয়া দশ বার হাত উৰ্দ্ধ হয়। লাঙ্গুল ঠেকিল গিয়া কাৰ্ত্তিকের গায় ॥ শূন্ত মার্গে রাম রাম রাম রাম বলে। অতি ভীমকায়, লম্বা পুচ্ছ, পিছে ঝুলে ॥ অক্ৰুরে রামকুমারে ডেকেছে কীৰ্ত্তিক । কি দেখিকু কি হইল নাহি পাই ঠিক। তোমরা জানহ শাস্ত্রগ্রন্থ রামায়ণ । দেখ এসে পাগলের লক্ষণ কেমন ॥ ঘরে থাক কেন সবে বাহিরে এসনা । এক। আমি দেখিলাম তোরা দেখিলিন ॥ অঙ্কুর রামকুমার বাহিরে আসিল । মারুতি মূরতি দেখি মূৰ্ছিত হইল। দেখে মোহ প্রাপ্ত হৈলি কহিছে পাগল । । ধ’রে তুলে বলে তোরা বলহরিবোল ॥ শম্ভুনাথে বলে কি দেখিলি শম্ভুনাথ । শস্তু কহে লেজ দেখি দশ বার হাত । পাগল বলিছে কারু নাহি দিব ফাকি। দেখাইব যাহা আছে দেখিবার বাকী ॥ । এ গ্রামের শুাম রামা সবে ডেকে আন । সকলে দেখুক আমি বানর প্রধান ॥ চূড়ামণি পুত্র রামমোহন সুমতি । ঠাকুরের প্রিয় ভক্ত মাতা তোলাবতী ॥ পাগল কহিছে ডেকে সবে তোরা আয় । হইয়াছে বেশী বেলী স্বানের সময় ॥ চলিল সকল ভক্ত হরিধ্বনি দিয়ে । , পাগলের জয় জয় সকলে বলিয়ে ॥ মধ্য খণ্ড । অগে চলিলেন সব মতুয়ার গণ । আর সব পিছে চলে করি সংকীৰ্ত্তন ॥ পাছের লোকের সঙ্গে চলিল গোঁসাই। ক্ষণে দেখে সৰ্ব্ব অগ্রে করে পাগলাই । হরিনাম ধ্বনি উঠে গগণমণ্ডলে । পৃগেল বলিল সবে নাম গিয়া জগে। জলকেলি করিতে সকলে এলি জুটে । সবে নাম ঘাটে আমি যাইব অঘাটে ॥ পাগল পশ্চিম দিকে যায় ঘাট ছাড়ি । শম্ভুনাথ সাথে সাথে ধায় দৌড়াদৌড়ি ॥ শম্ভুনাথ দৌড়ে যায় দেখিয়া কাৰ্ষিক । পিছে পিছে দৌড়ি যায় হইয়। বিদিক্ ॥ অঙ্কুর রামকুমার তাহ দেখি ধায়। পাগল মারিল লম্ফ লেজ দেখা যায় ৷ লম্ফ দিয়া পাগল জলের মধ্যে পড়ি । জল ফেলফেলি করে আছাড়ি পাছড়ি ॥ পূৰ্ব্ব ঘাটে সকলে করছে জলকেলি। পশ্চিমে পাগল করে জল ফেলাফেলি । জল ছিটাছিটি যেন ঘন মেঘ বৃষ্টি। পাগলের প্রতি কার নাহি চলে দৃষ্টি ॥ হেন কালে মধ্য জলে মকর উঠিল । পাগল মকর ধরি মাথায় লইল । জলের মধ্যেতে দৃষ্টি করে চারি জনে। পাগল জলের পরে বসে যোগাসনে ৷ .জল হ’তে উঠে জল বৃষ্টি যেন হয়। কেব। বরিষণ করে কে জল উঠায়। , মকর মস্তকে ছিল পড়িল জলেতে । পাগল বসিল গিয়া মকর পৃষ্ঠেতে ॥ দেখে পাগলের নাই পূৰ্ব্বের আরুতি। মকরের পৃষ্ঠে বসে শ্বেতবর্ণ। সতী ॥ পাগল জল তরঙ্গে ভাসিয়া বেড়ায় । ভাসিতে ভাসিতে শেষে এল কিনারায় । মাত্র এক মকর ভাসিয়া রহে জলে। . বৃষ্টিধারা অনুক্রমে মকর ডুবিলে। দেখিতে দেখিতে পুন মকর ভাসিল । গঙ্গা এসে মকরের পৃষ্ঠেতে বসিল ॥ দেখিয়া পাগল চাদ ধাইয়৷ চলিল । গঙ্গার চরণ ধরি মস্তকে করিল ॥ গঙ্গাদেবী ধরিয়া পাগলে করে কোলে । সিংহনাদে পাগল ডেকেছে মা মা বলে ॥ Ꮌ8Ꮌ