পাতা:ষোল আনি (জলধর সেন).djvu/১০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কোল-অমানি আমার সঙ্গে যদি কথা হোতে, তা হোলে ওর চাইতে ও শক্ত কথা শুনতে হোতো। এই শক্ত কথার জোরেই তোমার কাকা-বাবুর হাত থেকে তোমার বিষয় আমি এতকাল রক্ষা করে এসেছি ।” সিদ্ধেশ্বর বলিলেন “আর কোন কথা নয় মা, তার চরিত্রের উপর কটাক্ষ করাটা বোধ হয় আমার পক্ষে সঙ্গত হয় নাই!” রমামুন্দরী বলিলেন “ছ, অসঙ্গত হোতে, যদি তিনি তোমার এমন নিৰ্ম্মল চরিত্রের উপর সন্দেহ প্রকাশ না করতেন । র্তার কথার উপযুক্ত উত্তর তুমি দিয়েছ। কিন্তু একটা কথা বাবা, তুমি নয়-আনির জমিদারের মত বল নাই।” “কি কথাটা মা ?” “তুমি যে বলে এসেছ, তিনি যত পারেন, তোমার অনিষ্ট চেষ্টা যেন করেন, আমি তুমি সে সব নীরবে সহ করবে। এইটে জমিদারের মত কথা হয় নাই, তবে সিদ্ধেশ্বর চাটুর্যোর মত কথা হয়েছে বটে। বাবা, তুমি ত বেশী জান না, ঐ মনোঙর বাবু কত রকমে যে আমাদের অনিষ্ট চেষ্টা করেছেন, তা বলা যায় না ; কিন্তু আমি তা একেবারে মুদের সুদ তস্ত সুদ সমেত ফিরিয়ে দিতে পেরেছিলাম বলেই এ জমিদারি রক্ষা করতে পেরেছি । তা বেশ, তুমি নীরবই থেক। মনে করেছিলাম, তুমি এখন উপযুক্ত হয়েছ, তোমার হাতে সব সমর্পণ করে এখন ধৰ্ম্ম-কৰ্ম্ম করব । কিন্তু, দেখছি, তা আরও কিছুদিন হবে না—হয় ত মোটেই হবে না ;—এই নয়-আনির বিষয় আর সন্মান রক্ষার জষ্ট নানা কাও করতেকরতেই আমায় জীবন শেষ হবে। তা হোক, তাতে আমার মনে ● సె(