পাতা:ষোল আনি (জলধর সেন).djvu/১৬১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষোল-তমালি রমাসুন্দরী বলিলেন “ভগবান যা করেন, তাই হয়। র্তারই দয়ায় এই অঘটনও ঘটিয়া গেল।” সিদ্ধেশ্বর বলিলেন “ম, তুমি বল্‌ছ বটে যে, এক বৎসরের মধ্যেই সপিণ্ডকরণ শেষ করে বিবাহ হতে পারে । কিন্তু, তা কাজ নেই। বছরটা কেটেই যাক। হরিহর তখন বিষয়ের দখল পাবে। সেই সময় বিবাহ দিলেই হবে । তবে তোমাদের কাশী যাওয়ার একটু বিলম্ব হয়ে যাচ্ছে। তা অমনিও হোতো । হরিহরের সম্পত্তি বুঝিয়ে না দিয়ে ত আমার অব্যাতি নেই।” মানদা বলিলেন “দিদি, কাশী যাওয়া কি ? আমি ত বুঝতে পারলাম না ।” রমাসুন্দরী বলিলেন “আমাদের কাজ ত সুহারের বিয়ে হয়ে গেলেই শেষ হয়ে যাবে। তখন আর আমরা দেশে থেকে কি করব ? সিধু সংসার-ধৰ্ম্ম করবে না ; আমিও তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর করব না। তুই আর আমি কাশীতে যাব ; সিধুও সেখানে আমাদেরই কাছে থাকবে । জমিদারী রইল, আর হরিহর-সুহার द्रशेद्वा ।* মানদা বলিলেন “সে কি ভাল ব্যবস্থা হোলে ?” রমাসুন্দরী দীর্ঘনিঃশ্বাস ফেলিয়৷ বলিলেন “ভাল-মন্দের কর্তা কি আমরা ! যিনি কৰ্ত্তা, তিনি যা করবেন, তা করতেই হবে। তার বিধান কি কেউ খণ্ডন করতে পারে ?” মানদ। তবুও বলিলেন “এই বয়সে কি কেউ সংসার ত্যাগ করে ?” D ® R