পাতা:ষোল আনি (জলধর সেন).djvu/৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষোল-তমালি আমাকে যতই সন্ধুপদেশ দাও না কেন, আমাকে বিদ্বান, মহামুভব করবার জন্য যতই বক্তৃতা কর না কেন, আমি কিন্তু দেবীপুরের জমিদারই হব—তেমনি দাঙ্গাবাজ, তেমনি মামলাবাজ, আর যদি ক্ষমা কর দাদা, তা হলে বলি তেমনি ফেরেববাজ ।” “ওরে মুখ, যাদের কথা বলছিল, তারা যে তোর আমার পূজনীয় ব্যক্তি ; র্তাদের সম্বন্ধে অমন অশ্রদ্ধাভরে কথা বল কি ভাল ?” “এই দেখ, তুমি আবার উপদেশ জুড়ে দিলে। কিন্তু বল না দাদা, আমি যা বললাম তা সত্য কথা কি না ?” সিদ্ধেশ্বর বলিলেন “সব সময়ই কি সত্য কথা বল চলে ?” “তা হ’লে তুমি বলতে চাও কি, আমি মিথ্যা কথা বলি ?” “মিথ্যা বলতে বলছিনে ; আমার কথার উদ্দেশ্য এই যে, অপ্রিয় সত্য যথাসম্ভব না বলাই ভাল। তাতে কোন লাভ হয় না। যাক্ গে সে কথা, তোমার সঙ্গে দাড়িয়ে দাড়িয়ে আর তর্ক করব না। যাই কাকাবাবুর মহাভারত শুনে কোন রকমে পালাতে পারলে বীচি।” o হরিহর বলিল, “আরে, বাবা এখনও বৈঠকখানায় আসেন নি ; অন্দরেই আছেন । তোমার এত তাড়াতাড়ি কি ? তোমার মমিনপুর নিয়ে ত আর মাথাব্যথা পড়ে নাই। এস, এই বাগানের মধ্যেই একটু বলি। তোমাকে ত সব সময় পাইনে ৷” * "কেন পাবে না, আমার ওখানে গেলেই পার, যখন তোমার খুলী।” \ుసె