পাতা:সংকলন (১৯২৬) - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Q8 সংকলন তাহাদের বারে দাঁড়াইলে বার বার ফিরিয়া আসিতে হইবে। ইংরেজের মধ্যে যাহা সকলের চেয়ে বড়ো এবং সকলের চেয়ে ভালো তাহা আরামে গ্রহণ করিবার নহে, তাহা আমাদিগকে জয় করিয়া লইতে হইবে। ইংরেজ যদি দয়া করিয়া আমাদের প্রতি ভালো হয় তবে তাহা আমাদের পক্ষে ভালো হইবে না। আমরা মনুষ্যত্ব বারা তাহার মনষ্যেত্বকে উদবোধিত করিয়া লইব। ইহা ছাড়া সত্যকে গ্রহণ করিবার আর কোনো সহজ পন্থা নাই। এ কথা মনে রাখিতে হইবে যে, ইংরেজের যাহা শ্রেষ্ঠ তাহা ইংরেজের কাছেও কঠিন দুঃখেই উপলব্ধ হইয়াছে, তাহা দারণ মন্থনে মথিত হইয়া উঠিয়াছে, তাহার যথার্থ সাক্ষাংলাভ যদি করিতে চাই তবে আমাদের মধ্যেও শক্তির আবশ্যক। আমাদের মধ্যে যাহারা উপাধি বা সম্মান বা চাকরির লোভে হাত জোড় করিয়া, মাথা হে’ট করিয়া ইংরেজের দরবারে উপস্থিত হয়, তাহারা ইংরেজের ক্ষুদ্রতাকেই আকর্ষণ করে, তাহারা ভারতবর্ষের নিকট ইংরেজের প্রকাশকে বিকৃত করিয়া দেয়। অন্য পক্ষে যাহারা কাণ্ডজ্ঞানবিহীন অসংযত ক্ৰোধের দ্বারা ইংরেজকে উন্মত্তভাবে আঘাত করিতে চায় তাহারা ইংরেজের পাপপ্রকৃতিকেই জাগরিত করিয়া তোলে। ভারতবর্ষ অত্যন্ত অধিক পরিমাণে ইংরেজের লোভকে, ঔদ্ধতাকে, ইংরেজের কাপর্ষতা ও নিষ্ঠুরতাকেই উদবোধিত করিয়া তুলিতেছে, এ কথা যদি সত্য হয় তবে সেজন্য ইংরেজকে দোষ দিলে চলিবে না, এ অপরাধের প্রধান অংশ আমাদিগকে গ্রহণ করিতে হইবে। সবদেশে ইংরেজের সমাজ ইংরেজের নীচতাকে দমন করিয়া তাহার মহত্ত্বকেই উদ্দীপিত রাখিবার জন্য চারি দিক হইতে নানা চেষ্টা নিয়ত প্রয়োগ করিতে থাকে, সমস্ত সমাজের শক্তি প্রত্যেককে একটা উচ্চ ভূমিতে ধারণ করিয়া রাখিবার জন্য অশ্রাতভাবে কাজ করে; এমনি করিয়া মোটের উপর নিজের নিকট হইতে যতদর পর্যন্ত পণফল পাওয়া সম্ভব, ইংরেজসমাজ তাহা জাগিয়া থাকিয়া বলের সহিত আদায় করিয়া লইতেছে। কিন্তু যে ভারতবর্ষের সঙ্গে ইংরেজের কারবার সেই ভারতবর্ষের সমাজ নিজের দগতি দর্বলতা -বশতই ইংরেজের ইংরেজত্বকে উদবোধিত করিয়া রাখতে পারিতেছে না; সেইজন্য যথার্থ ইংরেজ এ দেশে আসিলে ভারতবর্ষ যে ফল পাইত সে ফল হইতে সে বঞ্চিত হইতেছে। সেইজন্যই পশ্চিমের বণিক সৈনিক এবং আপিস-আদালতের বড়ো-সাহেবদের সঙ্গেই আমাদের সাক্ষাৎ ঘটে; পশ্চিমের মানষের সঙ্গে পবের মানষের মিলন ঘটিল না। পশ্চিমের সেই মানুষ প্রকাশ পাইতেছে না বলিয়াই এ দেশে যাহা-কিছু বিপ্লব