পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/১৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sఫి মওলালে সত্রে সেনকালেনর কথা কতপ্রকার গ্রন্থ ছাপা হইয়াছে তাহা কি সৰ্ব্বতত্ত্বদীপিকা প্রকাশক দেখেন নাই কিম্বা দেখিয়া ও পাঠ করিয়া বুঝিলেন যে উক্ত গ্রন্থসকলে জ্ঞানোপযোগি কোন কথা নাই । এইহেতুক সে সকল গ্রন্থের নাম উল্লেখ না করিয়া কেবল চণ্ডী গঙ্গণভক্তি তরঙ্গিণী বিদ্যাম্বন্দর প্রভৃতি গ্রন্থ যে আছে তাহাতে মনোগত বিষয় অর্থাৎ জ্ঞানোদয়নিমিত্ত কোন সদুপায় নাই লিখিয়াছেন। উত্তর । তিনি যদ্যপি ঐ গ্রন্থসকল পাঠ করিয়া থাকেন এবং তাহার অর্থসকল বোধ হইয়া থাকে এমত জানিতে পারি তবে তাহাতে আমারদিগের যাহা জিজ্ঞাস্ত তাহ পশ্চাৎ ব্যক্ত করিব। -- সং চং সিমাচার চন্দ্রিক ] ( ৩ অক্টোবর ১৮২৯ । ১৮ আশ্বিন ১২৩৬ ) ...অপর ৩ ভাত্রের চন্দ্রিকায় পুনরায় লিখেন যে দীপিকাকার লিখিয়াছেন যে, আমারদের মধ্যে এক্ষণে ভাষাতে এমত কোন গ্রন্থ প্রকাশিত নাই যে তাহাতে নানাবিধ । বৃত্তান্ত ও ভিন্ন২ দেশীয় লোকের ব্যবহার ও চরিত্রাদি অবগত হওয়া যায় এইরূপ লিখিয়া পরে লিখেন যে সংস্কৃতানভিজ্ঞ বিষয়ি লোকেদের কারণ ভাষাতে চণ্ডী ও গঙ্গাভক্তিতরঙ্গিণী এবং বিদ্যাসুন্দরপ্রভৃতি গ্রন্থ যে২, আছে তাহাতে জ্ঞানেদিয়ের নিমিত্তে কোন সদুপায় নাই পূৰ্ব্বোক্ত কামনায় বোন কথা না বহিয়া অথব তদৰ্থ প্রকৃতরূপে না বুঝিয়া শেষ কথার বিপরীতার্থে প্রমাণ দিয়া মনসামঙ্গল প্রভৃতি অনেক গ্রন্থের নাম উল্লেখ করিয়াছেন কিন্তু লাউসেনের পালা ও দূতীবিলাস ও নববাবুবিলাস এই কয়েকখানি গ্রন্থের নাম কেন লিখিতে বিস্মৃত হইয়াছেন হায়২ সোণ ফেলে অঞ্চলে গির এ বড় খেদের বিষয় যেহেতুক তাহাতে অনেক জ্ঞানেদয়ের সদুপায় ছিল চন্দ্রিককার যে২ জ্ঞালোদয় নিমিত্তে ভাষা পুস্তকের নাম উল্লেখ করিয়ছেন তাহাতে ভিন্ন দেশীয় লোকেরদের চরিত্রাদি কোন কথা নাই ইহা চন্দ্রিকণকার বুঝি না দেখিয়া থাবিবেন দৃষ্টি করিলে এমত অসম্ভব কথা কেন লিখিবেন যদ্যপি কিঞ্চিৎ দ্বেষশূন্ত হইয়া দীপিকা পাঠ করিতেন তবে তাহার এরূপ দোষ উল্লেখ করায় প্রয়োজন থাকিত না অলমিতিবিস্তরেণ । তিমিরনাশক পাঠকস্ত । ( ৭ নবেম্বর ১৮২৯ ।। ২৩ কাৰ্ত্তিক ১২৩৬ ) মহাভারত –চন্দ্রিকাযন্ত্রালয়ে সংপ্রতি সংস্কৃত মহাভারত ছাপাকরণের আরম্ভ হইয়াছে প্রকাশক তাহার মূল্য ৬৪ টাকা স্থির করিয়াছেন এবং পুস্তকের বাহুল্যদৃষ্টি মূল্য অধিক বোধ হয় না তথাপি তাহ লওনে অনেকে অক্ষম হইবেন । সংস্কৃত পুস্তক যে প্রকারে লেখা যায় তদনুরূপে তাহা তুলাত কাগজের উপরে ছাপা হইবে সেই প্রকারকরণ শাস্ত্রসিদ্ধ বটে কিন্তু ব্যবহারানুপযোগী। কলিকাতায় অন্য এক যন্ত্রালয়ে ঐ মহাভারত দেবনাগর অক্ষরে হিন্দি ভাষায় শ্রযুত কাশীর রাজার খরচে ছাপা হইতেছে ।