পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/১৭৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সমাজ SNలిపె বাদ্য শ্রবণে ও নৃত্য দর্শনে সাহেবগণে অত্যন্ত আমোদ করিয়াছিলেন । পরে ভীড়েরা নানা শং করিয়াছিল কিন্তু তাহার মধ্যে এক জন গো বেশ ধারণপূর্বক ঘাস চৰ্ব্বণাদি করিল ( ৫ ফেব্রুয়ারি ১৮২৫ । ২৫ মাঘ ১২৩১ ) সৎ করার ফল ॥—শুনা গেল যে ধোপাপাড়ানিবাসি রূপনারায়ণ চট্টোপাধ্যায়ের পুত্ৰ শ্ৰীকাশীনাথ চট্টোপাধ্যায় শ্ৰীশ্ৰীসরস্বতী প্রতিমার বিসর্জনের দিবসে প্রতিমা সমভিব্যাহারে এক সং বাহির করিয়াছিলেন তাহার ভাব এই একটা সাধারণ কথা আছে যে পথে হাগে আর চক্ষু রাঙ্গায়। এই ভাবে একটা মনুষ্যাকার পুত্তলিকা নিৰ্ম্মাণ করাইয় তাহাকে বিবস্ত্র করিয়া সম্মুখে একটা জলপাত্র রাখিয়াছিলেন ইত্যাদি তাহার ভাবশুদ্ধ করিয়াছিলেন ইহাতে সংস্থদ্ধ চট্টোপাধ্যায় পুলিসে প্লুত হইয়াছিলেন পরে বিচার কৰ্ত্ত সাহেব তাহাকে কহিলেন যে তুমি তোমারদিগের দেবতার সম্মুখে এপ্রকার কদৰ্য্যাকার সং করিয়াছ এ অতি মন্দ কৰ্ম্ম ইত্যাদি কথায় অনেক তম্বি করিয়া শেষ ৫০ পঞ্চাশ টাকা দণ্ড করিয়াছেন । ( ৫ এপ্রিল ১৮২৮ । ২৫ চৈত্র ১২৩৪ ) ইশতেহার —চুচড়া মোকামে পূৰ্ব্বাপর যেরূপ সংহইতেছিল তাহা এক্ষণে বন্ধ হইয়াছে অতএব সেইরূপ সং কপোলেশ্বর গ্রামে শ্ৰীযুত অভয়চরণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও শ্ৰীযুত পাৰ্ব্বতীচরণ বন্দ্যোপাধ্যায় কোম্পানির দ্বারা হইতেছে এবং ৩০ চৈত্র বৃহস্পতিবার বাহির হইবেক । ইস্তক ত্রযুত শিবচন্দ্র রায় চৌধুরির বাটীর সম্মুখহইতে চাণকের লাইনপর্যন্ত এ সঙ্গের গমনাগমন হইবেক অতএব সকলের জ্ঞাপনার্থে ইহা প্রকাশ করা যাইতেছে। ( ২৪ জানুয়ারি ১৮২৯ । ১৩ মাঘ ১২৩৫ ) হাজি সাহেবের সং —গত শনিবার রাত্রিতে শ্ৰীযুত বাবু গুরুচরণ মল্লিকের বাটতে আখড়া গানের দুই দলে যুদ্ধ হইয়াছিল তৎশ্রবণাবলোকনে ঐ ভবনে এতন্নগরস্থ বহুতর বাবুগণ ও অন্যান্য অনেক জনের আগমন হওয়াতে চমৎকার সভা হইয়াছিল সে সভায় এক ব্যক্তি হাজি সাহেবের সং সাজিয়া আইল তাহার বেশ ও আকার প্রকার ব্যবহার দৃষ্টিমাত্র সকলেই য়িহুদী জাতি জ্ঞান করিয়া হুকা উঠাইতে আজ্ঞা দিলেন কিন্তু তাহাকে বড় লোক জ্ঞানহওয়াতে সভামধ্যে আসিতে বারণ করিতে কাহার মন হইল না পরে সে সভায় প্রবেশনিস্তর সভ্যতা প্রকাশ করিল অর্থাৎ সেলাম করত সকলকেই সম্বোধন করিয়া উপবেশনানস্তর এক কেতাব দেখিতে লাগিল তৎপরে অনেকে সংজ্ঞান করিলেন কিন্তু এ ব্যক্তি কে তাহা নিশ্চয় হইল না শেষে পরিচয় দেওয়াতে জানা গেল