পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/১৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সমাজ ১৫৩ বাৰু ধন ব্যয় করিয়া পুণ্য সঞ্চয় করিতেছেন রোগি ব্যক্তি রোগহইতে মুক্ত হইতেছে অরোগির ইহাতে কোন লভ্য নাই কিন্তু এমনি সৎকর্মের ধৰ্ম্ম এই সংবাদ শুনিয়া কে না ধন্যবাদ করিবেন। আর অসৎ কৰ্ম্মের এমনি জানিবেন যে করে তাহার পাপভোগী সেই হয় তাহারি ধন ক্ষয় হয় তাহাতে অপরের কিছু ক্ষতি নাই কিন্তু তাবতেই কহে নরাধম অধঃপাতে যাউক অতএব প্রার্থনা পরমেশ্বর সকলকেই সৎকৰ্ম্মে মতি দিউন –সং চং । - আর্থিক অবস্থা { ২৩ মে ১৮১৮ । ১ ও জ্যৈষ্ঠ ১২২৫ ) হিন্দুস্থানের বাণিজ্যের বিবরণ –হিন্দুস্থানের উৎপন্ন দ্রব্য অন্ত দেশীয় লোকেরদের অতিশয় উপকারক। এ দেশের ধনের প্রধান কারণ এই এখানকার লোকেরা অন্য দেশের উৎপন্ন বস্তুর বড় আবশু্যক রাখে না অন্ত দেশীয় লোকেরদের গ্রাহ্য বস্তু এখানে উৎপন্ন হয় ইহার দ্বারা অন্তহ লোকেরা এখানকার বস্তু ক্রয় কারণ অনেক ধন আনে। আরও পূর্ব কালের রাজারদিগের অধিকারে দস্থ্যপ্রভূতি ভয়প্রযুক্ত লোকেরদের সম্পত্তির স্থৈৰ্য্য ছিল না। যে স্থানে এমত স্থৈৰ্য্য না থাকে এবং বিচার যথার্থ না হয় সে স্থানে ভিন্ন দেশীয় লোকেরা বস্তু ক্রয় কারণ টাকা কখন আনে না । এই ক্ষণে ইংল্পগুীয়েরদের অধিকারে যথার্থ বিচার হওয়াতে বাঙ্গালা দেশের বাণিজ্যাদি ও ব্যবসায়েতে ধনবৃদ্ধি অতিশয় হইতেছে । হিন্দুস্থানোৎপন্ন বস্তুর দ্বারা অন্য২ দেশীয়েরদের যে বাণিজ্য হয় সে এই২ বস্তু। প্রথম । নীল ত্রিশ বৎসরের মধ্যে তাহার কৃষি আরম্ভ হইয়াছে এবং স্থানে২ প্রায় ইংল্পওঁীয় সম্পৰ্কীয় নীলের কুট হইয়াছে সেই নীল কাপড়ে নানা প্রকার রঙ্গ করিবার কারণ আবস্তক। এবং অনুমান হয় হিন্দুস্থানে প্রতিবর্ষ নব্বই হাজার মন নীল উৎপন্ন হয় যদি ফিমন দেড় শত টাকা হয় তবে বৎসরে এক কোটি পয়ত্রিশ লক্ষ টাকা উৎপন্ন হয় সকল নীল প্রায় ইংল্পণ্ডে যাইয়া সৰ্ব্বত্র ব্যাপ্ত হয় – - দ্বিতীয়। তুলা পূৰ্ব্বে বাঙ্গালাতে অনেক উৎপন্ন হইত এখন দোয়াবে অর্থাৎ গঙ্গা ও যমুনার মধ্যবৰ্ত্তি দেশে অধিক উৎপন্ন হয়। যখন কলিকাতা সহরে তুলা আইসে তখন সেই তুলার রাশি জাহাজ মধ্যে অল্পস্থানে রাখিবার কারণ একটা মহাকলের দ্বারা চাপিয়া অতি ক্ষুত্র করা যায়। তুলা চীন দেশে প্রতিবৎসর অধিক যায় এবং তিন বৎসর হইল ইংগ্রওে অনেক যাইতেছে এবং সেখানে সেই তুলা দ্বারা বস্ত্র উৎপন্ন হয় তাহাতে অনেক২ লোকেও কার্ষ্য পায় --- তৃতীয় । আফিম মগধ ও কাশীতে প্রতি বৎসরে অনেক জন্মে । তাহার বাণিজ্য কেবল কোম্পানির অধীন অন্তের কোন বিষয় নাই । তাহার জন্মের বৃত্তান্ত এই আফিম ●