পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/২৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সমাজ - ఫి 64 নালিশ হইয়াছিল তাহা গ্রান্দজুরীর সাহেবের গ্রাহ করিলেন। নালিশ ইহাতে জন্মিল যে বাঙ্গাল হেরেন্ডেতে ফরিয়াদী সাহেবের ওকালতী কৰ্ম্মের বিষয়ে যাহা প্রকাশ হইয়াছিল তাঁহাতে তাহার মানহানি হয় । স্বাস্থ্য ( ৩ সেপ্টেম্বর ১৮২৫ । ২০ ভাদ্র ১২৩২ ) ওলাউঠা ॥—শহর কলিকাতার মধ্যে যেরূপ ওলাউঠ রোগের প্রাবল্য হইয়াছে তাহার বর্ণনা করিতে লেখনী অসমর্থ র্যাহার। মফঃস্বলে আছেন তাহার প্রায় ইহাতে বিশ্বাস করিবেন না কিন্তু তাহারা ভাগ্য করিয়া মামুন যে এ সময় তাহার কলিকাতায় নহেন। কলিকাতায় যত লোক প্রতিদিন মরিতেছে তাহার সংখ্যা করা সুকঠিন কিন্তু আমরা শুনিয়াছি যে এই সপ্তাহে গড়ে প্রতিদিন যদি চারি শত করিয়া ধরা যায় তবে প্রায় সমান হইতে পরিবে এবং কিছু কমিও ব। হয় । এই সপ্তাহে মুসলমান অধিক মরিতেছে বিশেষতঃ আমরা শুনিয়াছি যে এক দিনের মধ্যে ৫৭১ পাচ শত একাত্তর জন লোক মরিয়াছে কিন্তু ইহাতে প্রায় বিশ্বাস হয় না যে হউক তাহার কারণ সকলেই কহিতেছে যে সম্প্রতি মুসলমানেরদের মহরমেতে একাদিক্ৰমে তিন চারি রাত্রি জাগরণ করিয়াছিল ও আর২ অত্যাচার করিয়াছিল এইহেতুক অধিক মুসলমান মরিতেছে । এবং যাহারা কদৰ্য্য গলির মধ্যে বাস করে ভtহারদের মধ্যেও অধিক লোক মরিতেছে যেহেতুক কদৰ্য স্থানের দুর্গন্ধেতে ও মন্দ বায়ুতে এ রোগ জন্মে । যাহারা বড় রাস্তার ধারে উচ্চ স্থানে বাস করে তাহারদের মধ্যে এত লোক মরে নাই এবং আমরা শুনিয়াছি যে ভাগ্যবান লোকেরদের মধ্যে প্রায় এ রোগ হয় নাই । মুসলমানের এক হস্ত গভীর মৃত্তিক খনন করিয়া কবর দেয় তাহাতে আরো মন্দ হয় যেহেতুক রাত্রিকালে শৃগালাদি আসিয়া মৃত্তিকার মধ্যহইতে শব বাহির করে পরে সেই সকল শব পচিয়া আতিশয় দুৰ্গন্ধ হয় । অনেকে ভয়েতে মরে ওলাউঠা রোগে ভয় অপেক্ষা প্রবল উপসর্গ আর নাই এবং অনেকে ঐ ভয়েতে রোগগ্রস্ত হয় পরে হঠাৎ গঙ্গাতীরে লইবার উদ্যোগ হয় তাহাতে রোগির যত সাহসবৃদ্ধি হয় তাহা প্রায় সকলেই বিবেচনা করিতে পারেন । যখন রোগিকে কহা যায় যে তোমাকে গঙ্গাযাত্রা করিতে হইবে তখন সে ভাবে যে এই আমার অগস্ত্যযাত্রা আরো আমরা দেখিতেছি যে রোগের প্রথমাবস্থাতে যাহারা সাহেবলোকেরদের ঔষধ সেবন করে তাহারদের ভেদ বমি তৎক্ষণাৎ বন্দ হয় এবং অনেকে রক্ষা পায় কিন্তু খেদপূর্বক লেখা যাইতেছে যে অনেক লোক রোগের প্রথমাবস্থাতে না আসিয়া শেষাবস্থাতে আইসে তাহাতে ঔষধে কিছু করিতে পারে না কিন্তু রোগ হইবামাত্র যত লোক ঔষধ সেবন করিয়াছে তাহারদের মধ্যে প্রায় অনেকে রক্ষা পাইয়াছে । সংপ্রতি মোং শালিখাতে এক জন ভাগ্যবান লোক এই রোগে পীড়িত হইয়া গঙ্গাতীরে