পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/২৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


కారిu~ মনংবাদ পত্রে মেনকালের কথা মানসে আদালতে মোকদ্দমা করিয়া শ্ৰীযুত বিচারকর্তারদিগের নিকট দুইবার মহারাজের অনুমতি ছিল না এমত সপ্রমাণ করাতে শ্ৰীযুত বিচারকত্ত্বারা শ্ৰীযুত জগন্নাথ প্রসাদ বাবুকে বিভবাধিকারী করিয়া এই আজ্ঞা করিয়াছিলেন যে ভবিষ্যৎ যদ্যপি কোন ব্যক্তি উত্তরাধিকারী হইয়া নালিস করে তবে পুনৰ্ব্বার তাহার নালিস গ্রাহ করা যাইবেক । ইহাতে সংপ্ৰতি ঐ পোষ্য পুত্র বিভবপ্রাপ্তি জন্য স্থপ্রীমকোর্টে মালিস করিয়াছিলেন তাহাতে ব্রাহ্মণ পণ্ডিতপ্রভৃতি অনেকের প্রমাণ এবং অন্যান্য নিদর্শন পাওয়াতে তিনি যথার্থ পোষ্য পুত্র ও মৃত রাজার উত্তরাধিকারী এমত বোধ হইয়াছে । ( ২০ ডিসেম্বর ১৮২৩ । ৬ পৌষ ১২৩০ ) মেং য়্যারনট সাহেবের ইউরোপ প্রেরণ —২২ দিসেম্বর তারিখের হরকরা পত্রদ্বারা অবগত হওয়া গেল যে কলিকাতা জরনেল কাগজের এক অংশী বা লেখক মেং য়্যারনট সাহেব কলিকাতাহইতে মোং চন্দননগরে গিয়া তাহার আত্মীয় কাং কামনর সাহেবের সহিত কিছু কাল ছিলেন গত ১০ দিসেম্বর বুধবারে প্রবল আজ্ঞার দ্বারা পুলিসের এক বিজ্ঞ মাজিক্সিট খ্ৰীযুত পাটন সাহেব পুলিসের তরফ হামরাও লোক সঙ্গে লইয়া তথায় মেং য়্যারনট সাহেবকে গ্রেপ্তার করিয়া কলিকাতা আনিয়া ঐ দিবসেই শ্ৰীযুত অনরবল কোম্পানির ফেমনামক জাহাজদ্বারা স্বজন্মভূমি প্রেরণ করিয়াছেন। ( ১৪ ফেব্রুয়ারি ১৮২৪ । ৩ ফাল্গুন ১২৩০ ) শ্ৰীশ্ৰীযুত বড় সাহেব – ৭ ফেব্রুআরি শনিবার দিবা দশ ঘণ্টার সময় শহর কলিকাতার গবর্ণমেণ্ট ঘরে এতদ্দেশীয় ও অন্য২ দেশীয় প্রধান২ লোকেরা উপস্থিত হইয়াছিলেন। তাহার অৰ্দ্ধ ঘণ্টা পরে শ্ৰীশ্ৰীযুত গবৰ্ণর জেনেরাল বহাদর রাজসভারোহণ করিয়া রীত্যনুসারে সকলের নজরানা অর্থাৎ উপঢৌকন স্পর্শ করিয়া যথাযোগ্য সম্ভাষাপূর্বক এই২ লোকেরদিগকে বিশেষ মৰ্য্যাদা প্রদান করিয়াছেন ।... মৃত রাজা লোকনাথের পুত্ৰ শ্ৰীযুত কুমার হরিনাথ রায়কে পাচ পাৰ্চার এক খেলা ও এক শিরপেচ দিয়াছেন । শ্ৰীযুত বাৰু গোপীমোহন দেবের পুত্ৰ শ্ৰীযুত বাবু রাধাকান্ত দেবকে পাচ পাৰ্চার এক খেলtৎ ও এক শিরপেচ দিয়াছেন । বৰ্দ্ধমানের মহারাজের উকীল ত্রযুত বাৰু হরিনাথ মন্বিককে এক নিমাস্তিন ও এক যোড়া শাল ও এক গোসআর ও এক শিরপেচ দিয়াছেন । কোচবেহারের রাজার উকীল শ্ৰীযুত দেবনাথ রায়কে এক যোড়া শাল ও এক গোসআরা দিয়াছেন ।...