পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/২৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ধৰ্ম্ম Sath হইয়াছিল অনুমান হয় তিন লক্ষ লোকের কম নহে। এই বৎসর বৃষ্টিপ্রযুক্ত লোকেরদের কোন কষ্ট হয় নাই কিন্তু স্থানেই অনাবৃষ্টিপ্রযুক্ত জল কষ্ট হইয়াছে। ( ৯ মার্চ ১৮২২ । ২৭ ফাল্গুন ১২২৮ ) দোলযাত্রা – মোকম শ্রীরামপুরের গোস্বামিদিগের স্থাপিত শ্ৰীশ্ৰীযুত রাধামাধব ঠাকুর আছেন পরে এই মত দোল যাত্রাতে শ্ৰীযুত বাবু রাঘবরাম গোস্বামির পালা হইয়া দোল যাত্রাতে রোসনাই ও মজলিস ও গান বাদ্য ও ব্রাহ্মণ ভোজন ও ব্রাহ্মণ পণ্ডিতেরদিগের পুরস্কার আশ্চৰ্য্য রূপ করিয়াছেন ইহাতে অতিশয় মুখ্যাতি হইয়াছে। ( ৩০ মার্চ ১৮২২ । ১৮ চৈত্র ১২২৮ ) বারুণী ॥—গত বারুণীতে এ বৎসর অগ্রদ্বীপে অধিক লোক হয় নাই তথাপি অনুমান হয় যে পঞ্চাশ হাজার লোক হইয়াছিল । এবং মোং কাটোয়াতে বারুণী স্বানে বিশ হাজার লোক হইয়াছিল । ( ২৪ এপ্রিল ১৮১৯ । ১৩ বৈশাখ ১২২৬ ) চড়ক —গত সংক্রাস্তির দিনে মোং কলিকাতায় এমত এক প্রকার নূতন চড়ক হইয়াছিল যে তাহ শুনিলে শিষ্ট লোকেরা কর্ণে হাত দেয়। এক জন হিন্দু সহীস ও আর এক জন স্ত্রী এই দুই জন একত্র হইয় এক কালে চড়কে ঘুরিয়াছিল । তাহারদের অস্তঃকরণে লজ্জ কখনও প্রবেশ করিতে পারেন নাই যেহেতুক অনুমান ত্ৰিশ হাজার লোকের সাক্ষাৎকারে জগৎ প্রদীপ স্বৰ্ষ্য জাজল্যমান থাকিতেও এই দুষ্কৰ্ম্ম করিল। ( ২০ জানুয়ারি ১৮২১ । ৯ মাঘ ১২২৭ ) কানপুর —আমরা শুনিয়াছি যে এতদ্দেশহইতে এক জন এতদেশীয় লোক মোং কানপুরে কিঞ্চিৎ যোত্রাপন্ন রূপে আছে সে এতদেশীয় যত পূজা ও পৰ্ব্ব ও উৎসব সেই দেশে প্রচার করিয়াছে তাহাতে সে দেশে যে২ পূজা ও পৰ্ব্বাদি করা ব্যবহার ছিল না তাহাও সে দেশীয়ের করিতেছে সম্প্রতি আগামি চৈত্র মাসে সংক্রাস্তিতে এই দেশের মত সেখানেও চড়ক হইবেক এমত উদ্যোগ হইতেছে । ( ২১ এপ্রিল ১৮২৭ ন বৈশাখ ১২৩৪ ) চড়কপূজা –চড়ক পূজার সময় সম্যাসিরদের মধ্যে কেহ২ মত্ত হইয়া পথেতে এমত কদৰ্ঘ্যরূপে নৃত্যাদি করে ষে তাহা দৰ্শন করিতে ভদ্রলোকেরদের অতিশয় লজ্জা হয় অতএব তাহার নিবারণ করিতে কলিকাতাস্থ মাজিস্ক্রিট সাহেব লোকেরা নিশ্চয় করিয়াছেন এবং গত Woo