পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/২৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఫిuది মংবাদ পত্রে মেকালেৰ কথা

( ২০ নবেম্বর ১৮১৯ । ৬ অগ্রহায়ণ ১২২৬ ) মোকাম বলাগড়ের নিকটবর্তি শ্ৰীপুর গ্রামে প্রতিবৎসর কাৰ্ত্তিকী পূর্ণিমাতে বারোএয়ারি পূজা হইয়া থাকে। তাহাতে অনেক২ সমারোহ হয়। এবং বাজী পোড়ানের অনেক বাহুল্য হইয়া থাকে।--

  • ( ১১ আগষ্ট ১৮২১ । ২৮ শ্রাবণ ১২২৮ )

বৈদ্যবাটীর বারএয়ারি পূজা – বৈদ্যবাটীর বারএয়ারি মাতঙ্গী পুজা হইয়াছে ২৩ শ্রাবণ সোমবার পূজা হইয়াছিল কিন্তু ২৬ রোজ বৃহস্পতিবারপর্য্যস্ত প্রতিমা ছিলেন তাহাতে প্রতিমার সৌন্দর্ঘ্য অতিআশ্চৰ্য্য এবং পূজার পারিপাট্য বিভশাঠ্য ও চিত্তকাপট্য রহিত এবং গীতবাদ্য প্রতিপাদ্য করণ নিম্প্রয়োজন সেই ইহার আদ্য প্রয়োজন। এই পূজার পূৰ্ব্বাপর পাঁচ সাত দিন রথযাত্রার মত লোকযাত্রা হইয়াছিল বিশেষতঃ ইহাতে আট প্রকার সং হইয়াছিল সে অতি অদ্ভূত তাহ দেখিলে কৃত্রিম জ্ঞান প্রায় হয় না। ( ২২ সেপ্টেম্বর ১৮২১ । ৮ আশ্বিন ১২২৮ ) বারএয়ারি পূজার বিরোধ ॥—সংপ্রতি মোং জয়নগরশুামপুর গ্রামে এক বারএয়ারি মহিষমদিনী পূজা হইয়াছে তাহাতে ঐ পূজা উপলক্ষে জয়নগরের এক ভাগ্যবান ব্রাহ্মণ অসমম্বিত এক তাতির সমন্বয় করিবার কারণ ঐ তাতিকে নিমন্ত্রণ করিয়াছিল ইহাতে জয়নগরস্থ তাবৎ লোক এক পরামর্শ হইয়া সে তাতির সহিত সামাজিকতা না করিতে স্থির করাতে উভয় পক্ষীয় লোক পরস্পর রাগান্ধ হইয়া লাঠয়াল সংগ্ৰহ করিয়া পূজার দিবস ঠাকুরাণীর সম্মুথে খণ্ড প্রলয়ের মত অতিশয় মারামারি হইয়াছিল তাহাতে অন্ত বলিদান ও রক্ত পাতের অপেক্ষা প্রায় রহে নাই ও বারএয়ারি পূজাতে বারএয়ারী মারামারী প্রসিদ্ধি হইয়াছে। এখন তাহারদের মোকদ্দমা সদরে হইতেছে। ( ৩০ মে ১৮২৯ । ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১২৩৬ ) শাস্তিপুরের পূজা –গত বৃহস্পতিবারের গবর্ণমেণ্ট গেজেটে শান্তিপুরে অতিসমারোহপূর্বক যে বারওয়ারী মহাপূজা হইয়াছে তাহার বিষয় লিখিত আছে অনেকে কহিয়াছেন এ শাস্তিপুরের বারওয়ারী পূজা যে প্রকল্প ঘটাপূর্বক হইয়াছে ইহার পূৰ্ব্বে ঐ পূজা আর কখন এপ্রকার হয় নাই কিন্তু সে কল্পনামাত্র যেহেতুক পূজা সমারোহপূর্বক না হইয়া বরং তাহার বিপরীত হইয়াছে কেননা এমত কথিত ছিল যে ঐ প্রতিমা ৪৫ হাত উচ্চ কিন্তু তাহ ১৫ হাতের অধিক উচ্চ হয় নাই এবং পচিশ কি ত্ৰিশ হাজার রাজমজুর আসিয়া ঐ গৃহ গ্রন্থন করিল ইহাও কল্পনামাত্র ।