পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/৩০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ミSやB সংবাদ পত্রে মেকালের কথা ( ২৪ জুন ১৮২৬ । ১১ আষাঢ় ১২৩৩ ) ত্ৰমূৰ্ত্তি স্থাপন –গত বৃহস্পতিবার দশহরার দিবস ত্রযুত বাবু মতিলাল মল্পিক পাথুরয়া ঘাটার আপন নূতন বাটতে বিগ্রহ স্থাপনোপলক্ষে স্বজাতীয় ব্রাহ্মণ সকলকে এক২ যোড়া শাল ও স্বর্ণের বাজু এবং নিত্যানন্দ বংশু ৪৫ ঘর গোস্বামিরদিগকে এক২ যোড়া গঙ্গাজলী শাল হীরক অঙ্গুরীয়ক দুই নর মুক্তার মালা রূপার চন্দনের বাট থিরদের ঘোড় ও আসন দিয়া বরণ করিয়াছেন তদ্ভিন্ন গঙ্গাবংশুপ্রভৃতি অনেকে ছিলেন তাহারাও প্রায় তাদৃক সমাদৃত হইয়াছেন এবং আপনার গুরু ঠাকুরকে আড়াই হাজার টাকার বাট এবং ঐ পরিমাণে হীরকের অঙ্গুরীয়ক ও শাল এবং চারি নর মুক্তার মালা এবং নগদ আড়াই হাজার টাকা দিয়াছেন এবং শুনা যাইতেছে যে পূর্ণিমার দিবস সকলকে জলযোগ করাইয়া যথোচিতরূপ নগদ দিয়া বিদায় করিয়াছেন অপর গত দিবস ব্রাহ্মণকে দুই টাকা ও অন্য জাতীয়কে এক টাকা দিয়া কাঙ্গালি বিদায় করিয়াছেন প্রায় পঞ্চাশ সহস্ৰ লোক হইয়াছিল । সং কোং i. ( ৭ এপ্রিল ১৮২১ । ২৬ চৈত্র ১২২৭ ) মহামহাবারুণী । —গত শনিবারে মহামহাবারুণীর যোগে গঙ্গা স্নানে অনেক২ দেশীয় লোক আসিয়াছিল তাহাতে মোকাম বৈদ্যবাটীতে উৎকল, দেশীয় অনেক লোক আসিয়াছিল তাহারা অধিক পথ গমনেতে দুর্বল হইয় অতিশয় প্রচণ্ড রৌদ্রের উত্তাপেতে উত্তপ্ত জল পান করিয়া ওলtউঠা রোগে অনেক লোক পথে ও মোকাম বৈদ্যবাটীতে মরিয়াছে এবং তদেশস্থ লোকেরা অতিশয় নির্দয় ঐ বৈদ্যবাটীতে যে২ লোকের ওলাউঠা রোগ হইয়াছিল তাহারা অবসন্ন হইলে তাহার সঙ্গী লোকেরা ত্যাগ করিয়া পলাইল । ইহাতে গঙ্গার তীরে যে২ অবসন্ন লোক ছিল তাহার মধ্যে অনেকে জোয়ার সময়ে সজীব গঙ্গা পাইয়াছে। তথাকার দারোগ অনেক লোককে উঠাইয়া ঘোল ও দধিপ্রভৃতি খাওয়াইয়াছিল তাহার মধ্যেও অনেক মরিল কচিৎ কেহ২ বঁচিয়াছে । মোং ত্রিবেণীতে মহামহাবারুণীতে ছেষটি লোক মরে ইহার মধ্যে ওলাউঠা রোগে ৩০ ত্রিশ জন ও লোকের চাপাচাপিতে ছত্রিশ জন মরে ইহার মধ্যে বৃদ্ধ ৪ চারি জন ও বালক ৭ সাত জন অবশিষ্ট সকলি যুবা । এই সকল লোক প্রায় উড়িষ্যা প্রদেশীয় অন্য২ দেশীয় অল্প । ঐ মোকামে দারোগার অনেকে আসিয়া তদারক করিয়াছিল কিন্তু কিছুই হইল না কারণ লোকের হজামে লোক মারা পড়িয়াছে। ( ৩ এপ্রিল ১৮২৪ ৷ ২৩ চৈত্র ১২৩০ ) মহামহাবারুণী ।—মোং অগ্রদ্বীপে এই বৎসর যে প্রকার লোকসমারোহ হইয়াছিল এমত প্রায় কখন হয় নাই যেহেতুক পূর্ব পশ্চিম উত্তর দক্ষিণ চতুদিগের লোক দশ দিবসের পথহইতে আসিয়াছিল। ও চাকদহ ও ত্রিবেণী ও বৈদ্যবাটতেও অনেক লোক আসিয়াছিল কিন্তু ইহার