পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/৪০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


రిచిలిపి মংবাদ পত্রে মোকালেৰ কথা { ২৫ আগষ্ট ১৮২১ । ১১ ভাদ্র ১২২৮ ) চানক —মোকাম চানকে শ্ৰীশ্ৰীযুত কোম্পানী বাহাদূরের যে বাগান আছে তাহাতে নানা দেশীয় নানাবিধ পক্ষী ও জন্তু আছে তাহা দেখিলে আশ্চৰ্য্য বোধ না হয় এমত লোক নাই যেহেতুক সকল দেশে সকল নাই। ঐ বাগানে হরিণ আছে তাহার মধ্যে এতদেশীয় দুই তিন প্রকার আছে ও অন্তই দেশীয় নীলগা নামে এক প্রকার হরিণ আছে সে ঘোটকের মত উচ্চ ও অতিদুৰ্ব্বত্ত ও অতিশয় শৃঙ্গবিশিষ্ট । এবং শ্বেতবর্ণ এক প্রকার হরিণ আছে তাহার চক্ষু রক্তবর্ণ। চট্টগ্রাম নিকটস্থ পৰ্ব্বতীয় চারি পাচ গরু আছে তাহারদিগকে দেখিলে গরু বোধ হয় না সে গরু অত্যুচ্চ ও কৃষ্ণবর্ণ ও বৃহৎ শৃঙ্গ অদ্ভূতাকার দেখা যায়। এবং ইংল্পগুীয় এক বলদ আছে তাহার শরীর অতিশয় মুখস্পর্শ । ব্যাঘ্ৰ চারি পাচ প্রকারের দশ বারটা আছে তাহার মধ্যে এক স্থানে এক কৃষ্ণবর্ণ ব্যাঘ্র আছে । আর এক স্থানে এই দেশীয় বৃহৎ তিনটা ব্যাঘ্র থাকে। অন্ত এক স্থানে এক ব্যাঘ্ৰ আছে তাহার গায় গোল২ চক্রাকৃতি চিহ্ন । # এক স্থানে সিংহের স্ত্রী পুরুষ দুই আছে তাহার বয়স দেড় বৎসর সে পাণ্ডুবৰ্ণ নিৰ্ম্মল শরীর তাহার লাঙ্গুল গোলাঙ্গুলাকৃতি কিন্তু অভিশাস্ত যাহারা আহারাদি দেয় তাহারদের কথানুসারে সে চলে । ছোট২ চারি পাচ ব্যাস্ত্ৰ আছে তাহার মধ্যে একটা ব্যাভ্র সে খোলাসা ও মনুষ্যের দ্বেষ করে না ও সে মঙ্গুষ্যের মত খাটে শয়ন করে ও লোক নিযুক্ত আছে তাহাকে বাতাস করে । এবং শুনা যায় যে শ্ৰীশ্ৰীযুত যখন সীকার দেখেন তখন ঐ ব্যাঘ্র সীকার করে । দুই তিনটা শুগিস আছে তাহারা খাটে শয়ন করে তাহারদের শরীরে বস্ত্র আচ্ছাদন করিয়া রাখে । কাঙ্গরু নামে নবহলওঁীয় এক জন্তু সে দুই প্রকারে চারিট আছে তাহার মধ্যে এক স্থানে ছোট জাভি একটা ও অন্যস্থানে বড় জাতি তিনট আছে । তাহার সম্মুখের দুই পা অতিক্ষুদ্র ও দুৰ্ব্বল ও পশ্চাদের দুই পা বড় ও সবল সেই পায়ে লম্ফ fদয়া চলে সে পায়ে তিনটা নখ । সেই জন্তুর একটা বাচ্চ আছে লোকে কহে যে সে বাচ্চা গর্ভহইতে নির্গত হয় ও ইচ্ছামত গর্তে প্রবিষ্ট হয় সে কথা কিছু নয় । কিন্তু তাহার বক্ষঃস্থল অবধি তলপেট পৰ্য্যস্ত একটা থৈলীর মত আছে তাহার স্তনও সে থৈলিতে আবৃত ঐ বাচ্ছ সেই থৈলীর মধ্যে থাকিয়া স্তন পান করে কখন২ ইচ্ছা মত বাহির হইয়া থাকে। যে হউক সে অতিআশ্চর্ষ্য বটে এমত কোন জন্তুর নাই । আর দুই তিনটা জন্তু উটের মত আকৃতি কিন্তু ছোট ও শরীর সমান। আর এক গাওরের বাচ্চ আসিয়াছে তাহার খড়গ প্রকাশক্সপে অদ্যাপি উঠে নাই কিন্তু নমুদ হইয়াছে সে অতিশাস্ত অনায়াসে লোকেরা তাহার শরীরে হস্ত দেয় তাহার শরীরে লোম নাই ও অতিকঠিন শরীর। আর গর্দভের আকার এক বড় ঘোড়া আছে সে পীতবর্ণ ও দেখিতে অতিকুন্দর। লোকে কহে যে ঐ ঘোড়া এক দিনের মধ্যে পঞ্চাশ ক্রোশ চলিতে পারে কিন্তু কেহ অদ্যাপি তাহার উপরে সওয়ার হয় নাই। এবং তিন চারি দেশীয় চারি পাচ ভালুক ও দুই তিন প্রকার বানর ও দুই তিন প্রকার বিড়াল আছে । এবং কাশ্মীর দেশের দুইটা ছাগল আছে তাহার লোম অতি কোমল তাহাতে শাল জন্মে । এবং এক বৃহৎ পক্ষী অাছে তাহার গলা অতিদীর্ঘ ও ঘোড়ার