পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/৪৬৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সম্পাদকীয় BBB S BBBBBB BBBB BB g S BBBBBB BBBS BB gS BBBBB BBB BB DDBBBBS S BBBBB BBBBBB BB BBBS BBBBBB BBBBBB BB BBBBS TBBDD BBBBB BB BBBBS BBBBB BBBBBBB BB BBS BB BBBBB BBBBS B BBS TBBBu BBBBS BB BBBB S BBBBBB BBBBS BB BBBBBS S BBBBB BBBB DD BBB S S BBBBBB BBBB BB BBBBBS giBB BBB B BBBBBB SBBBDD শৰ্ম্মণাম সাং বেড়াগড়ি। শ্ৰীকৃষ্ণচন্দ্ৰ শৰ্ম্মণামৃ সাং ময়মনসিং। শ্ৰীহরিনারায়ণ দেবশৰ্ম্মণাম সাং মহিষাদল । BBBBBBB BBBB BB BBBBBB S BBBBBB BBBBBB BB BBBS BBBB BBBBBB সাং মাজেদ । ঐবিশ্বনাথ দেবশৰ্ম্মণাম সাং বৰ্দ্ধমান সন্নিদ্ধ মির্জাপুর । শ্রীচণ্ডীচরণ শৰ্ম্মণামৃ সাং রাজপুর । BBBBBB BBBBBB BB BBBBS BBBBBB BBBBB BB BBBB S BBBBBB BBBBBB BB BBBBBS TBBB BBBBBB BB BBB S BBBBBB BBBB BB BBBB S KBBBBB BBBBBBB BB BBBB S BBBBBB BBBB BB BBBBBS TBBBB BBBBBBS KBBBB শৰ্ম্মণাম । শ্রীরুদ্রেশ্বর শষ্মণাম । শ্রীকালীবর শষ্মণাম । শ্ৰীভুবনেশ্বর শম্মণাম । 尊 প্রাচীন সংবাদপত্র হইতে কয়েক জন খ্যাতনাম পণ্ডিত সম্বন্ধে যেটুকু জানা গিয়াছে নিমে তাহার উল্লেখ করিতেছি -- শ্রীরাম তর্কালঙ্কার । ইহার মৃত্যু হইলে ৯ ফেব্রুয়ারি ১৮৫৭ তারিখে ‘সমাচার চন্দ্রিক লেখেন :– --অাড়িয়াদহ নিবাসি রাজমান্ত পণ্ডিত সদর আমীন vত্রীরাম তর্কালঙ্কার ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয়ের জ্ঞান গঙ্গালাভ হইয়াছে, তাহার দিগ্বিজয়ী পুত্র যশোহরের প্রধান সদর আমীন শ্ৰীমান উপেন্দ্রচন্দ্র স্বায়রত্ন ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয় রাজার মত পিতৃশ্ৰাদ্ধ সম্পন্ন করিয়াছেন.নবদ্বীপ, বহির্গাছী, বেলপুকুর, উল, শাস্তিপুর, ত্রিবেণী, কুমারহট্ট, ভাটপাড়া প্রভৃতি কলিকাতা পৰ্য্যন্ত নানা সমাজের মহামহোপাধ্যায় অধ্যাপক ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয়দিগের চলিত পত্রে আহবানে সভাস্থ করেন,••• । খ্রীরাম শিরোমণি । নড়াইলের ভূম্যধিকারী রামরত্ব রায়ের কাশীপুর-আবাসে একটি শাস্ত্রীয় বিচারে শ্রীরাম শিরোমণির নাম পাওয়া যায়। ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৮৫৪ (শনিবার) তারিখের সম্বাদ ভাঙ্গরে ইহার যে বিবরণ প্রকাশিত হয় তাহ নিম্নে উদ্ধত করা হইল :– ঐযুক্ত বাৰু রামরত্ব রায় –জিলা যশোহর নড়াল নিবাস কলিকাতার উত্তর কাশীপুর প্রবাসি ধৰ্ম্মরাশি মধুভাষী পুণ্যকায় বাবু রামর রায় মহাশয় গত বৃহস্পতিবাৰে গঙ্গাতীর কাশীপুরে তাহার পিতা ঠাকুরের একেদিষ্ট শ্রাদ্ধ করিয়াছেন, শ্ৰাদ্ধ সভায় নবদ্বীপাদি নানা সমাজস্থ ব্যুনাধিক পাঁচশত ব্রাহ্মণ পণ্ডিত উপস্থিত ছিলেন, তাহারা পরস্পর ন্যায় বেদাস্ত ও ধৰ্ম্ম শাস্ত্রাদির नाना গ্রন্থের বিচার করিলেন, বিশেষত নৈহাটা নিবাসি প্রসিদ্ধ অধ্যাপক শ্রযুক্ত রামকমল ন্যায়রত্ন ভট্টাচাৰ্য্য মহাশয়ের স্থপত্রি পুত্ৰ শ্ৰীমান নন্দকুমার ভট্টাচাৰ্য্য ন্যায় শাস্ত্রের কেবলায়ন্ত্রি নামক গ্রন্থের গদাধর ভট্টাচার্থ্যের টিপ্পনীর উপর এক আপত্তি করিয়াছিলেন নবদ্বীপের প্রধান অধ্যাপক যুক্ত শ্রীরাম শিৰােমণি প্রভৃতি কেহ তাহার উত্তর করিতে পারেন নাই, এইক্ষণে শাস্ত্রীয় বিচারের আমোদ কেবল রামরত্ব বাবুর সভাতেই দেখিতে পাই আর কোন সভায় শাস্ত্রীয় বিচার হয় না, ধনি লোকেরাও বিচার শ্রবণে আমোদ করেন ন৷ অতএব শাস্ত্র লোপ হইবার এই এক প্রধান কাৰণ হইয়াছে --- ১ জুলাই ১৮৫৮ তারিখে অরুণোদয়’ ইহার মৃত্যু-সংবাদ প্রকাশ করেন। সংবাদটি এইরূপ — পাক্ষিক সংবাদ। —...অবগতি হইল যে আমদেশের অদ্বিতীয় নৈয়ায়িক নবদ্বীপস্থ শ্রীশ্রীরাম শিরোমণি মহাশয় কএক দিবস হইল পরলোক গমন করিয়াছেন ।