পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/৪৯৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সম্পাদকীয় 8●。 ২০ জুন ১৮৫৪ তারিখের ‘সম্বাদ ভাস্করে নীলরত্ব হালদার সম্বন্ধে সম্পাদক লিখিয়াছিলেন – ঐযুক্ত বাবু নীলরত্ব হালদার মহাশয় স্বনাম প্রসিদ্ধই আছেন যদিও বিখ্যাত ধনি বাবু নীলমণি হালদার মহাশয় উদ্যমদাতা ছিলেন তথাচ তৎ পুল্লত্ব রূপে নীলরত্ন বাবুর পরিচয় প্রচার করিতে হয় না যেহেতুক নীলরত্ন বাবু বিবিধ ভাষায় বিদ্বান ও গ্রন্থকৰ্ত্ত নামে সৰ্ব্বত্র পরিচিত হইয়াছেন এতদেশীয় প্রসিদ্ধ ধনি সস্তানদিগের মধ্যে কোন ব্যক্তি নীলরত্ন বাবুর ন্যায় লিখন পঠন ও জ্ঞান কথন বিদ্যালোচন গান বাদ্যাদি বিষয়ে মুখ্যাত হইতে পারেন নাই উক্ত বাবু অনেক গ্রন্থ করিয়াছেন তাহার কুত পুস্তক সকল পাঠ করিয়া বহু লোকের জ্ঞান লাভ হইয়াছে, হালদার মহাশয় প্রথমাবস্থায় নানা কাব্য গ্রন্থ করিয়াছিলেন তাহাতেই তাহার কবিতা শক্তি প্রকাশ পাইয়াছে তৎপরে নীলরত্ন বাবু জ্ঞান বিষয়ক পুস্তকাদি রচনা করিতে প্ৰবৰ্ত্ত হয়েন তাহাতেও জ্ঞানিগণ মধ্যে সুপ্রতিষ্ঠিত হইয়াছেন এবং এইক্ষণে শ্ৰীযুত বাবু এক গুরুতর কৰ্ম্ম আরম্ভ করিয়াছেন তাহাতে আমরা আশ্চৰ্য্য জ্ঞান করিতেছি, পরমেশ্বর সমীপে প্রার্থনা করি তত্ত্বজ্ঞান পরায়ণ হালদার বাবুর অভিলাষ পরিপূর্ণ হউক । আমরা বিশেষ জানি রাজ রামমোহন রায় মহাশয় গান দ্বারা ভগৰদ্‌গীতার কুটার্থ সকল প্রকাশ করিতে চেষ্টত হইয়াছিলেন কিন্তু সময়াভাব কিম্ব অন্ত কোন কারণ যাহাই থাকুক ফলে জ্ঞামি প্রধান রাজা বাহাদুরও তাহাতে সিদ্ধাভিলাষ হইতে পারেন নাই কেবল একটা গানের মধ্যে এই মাত্র নিবিষ্ট করিয়াছিলেন "ত্ৰৈগুণ্য বিষয় বেদ। নিস্ত্রৈগুণ্যে ভব রে,” ইহার মূল ভগবদগীতার শ্লেকাদ্ধ এই “ত্ৰৈগুণ্য বিময় বেদ। নিস্ত্রৈগুণো ভবাৰ্জ্জুন" রাজ রামমোহন রায় যাহাতে বিস্তর ব্যাকুল হইয়াছিলেন বাৰু নীলরত্ব হালদার মহাশযু সেই বিষয়ে যোগান্ধঢ় হইয়াছেন অর্থাৎ ভগবদগীতার BBBBB BBD BB BB BBBBBBSBB BBBB BB BBBBB BB BBBBB BBBB অতএব আমরা ঐ সকল গানামৃত পান পিপাসু হইয়। চাতকের ন্যায় রহিলাম । পৃ. ৮৪–‘বিদ্বন্মোদতরঙ্গিণী । ১২৩২ সালে ( ১৮২৬ সনে ? ) রাধামোহন সেন বিশ্বন্মোদস্তরঙ্গিশী’র পদ্যে অমুবাদ প্রকাশ করেন। রাধাকাস্ত দেবের লাইব্রেরিতে ইহার এক খণ্ড আছে । পুস্তকের আখ্যাপত্ৰ : অথ | বিদ্বন্মোদ তরঙ্গিণী | সংস্কৃত গ্রন্থ । এবং ! তদনুযায়ীক ভাষা বিরচিত | পদ্য । স্ত্রীরাধামোহন সেন দাস কর্তৃক কলিকাতায় । ঐবিশ্বনাথ দেবের ছাপাখানায় | মুদ্রাঙ্কিত হইল । ১২৩২ [ ' পূ. সংখ্যা ১০ ° ] আখ্যাপত্রের সম্মুখভাগে একখানি লাইন-এনগ্রেভিং আছে। চিত্রের নীচে লেখা আছে – “শ্ৰীযুত রাজা বিক্রম মেনের রাজ্যসভা শ্ৰীমাধবচন্দ্র দাযেন খুদিত” রচনার নিদর্শন :– - পয়ার । এক দিন ভূপতি বিক্রমসেন রায়। পাত্র মিত্র সভ্যগণে বেষ্টিত সভায় । হেনকালে স্বসজ্জায় হইয়া মণ্ডিত। ক্রমে উপস্থিত হৈলা বিবিধ পণ্ডিত । প্রথমতঃ পরম বৈষ্ণব একজন। সভা মধ্যে আসিয়া দিলেন দরশন। সৰ্ব্বশাস্ত্র বিশারদ সভ্য কোনজন । রাজাকে শুনান ক্রমে সবার বর্ণন ॥ ১৮৩২ সনে কালীকৃষ্ণ দেব বাহাদুর সংস্কৃত শ্লোক সমেত ‘বিশ্বন্মোদতরক্ষিণী’র ইংরেজী অনুবাদ প্রকাশ করেন। ইহারও এক খণ্ড রাধাকান্ত দেবের লাইব্রেরিতে আছে। ইহার ইংরেজী ও বাংল আখ্যাপত্র দুইটি পর-পর উদ্ধত করিতেছি : The Vidvun-Moda-Taranginee ; ; or, | Fountain of Pleasure to. the Learned. | Translated into English, By Maha-Raja Kalee-krishna Bahadur, of Sobha-Bazar, From the Serampore Press. 1832. I