পাতা:সংস্কৃত সাহিত্যের কথা - নিত্যানন্দ বিনোদ গোস্বামী.pdf/১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

বেদাঙ্গ }} নিঘণ্টই হোলো পৃথিবীর প্রাচীনতম অভিধান একথা আমাদের মনে রাখা উচিত। ; , , সংস্কৃতে এইরকম অভিধানজাতীয় বই পরবর্তী কালে অনেক রচিত হয়েছে। এর মধ্যে অমরকোষ খ্যাতিতে অগ্রগণ্য। এক এক বস্তুর নাম এগুলিতে পৃথক পৃথক ভাগে সাজানো। আবার এক অক্ষরের পরে ক— যেমন বক, দু অক্ষরের পরে ক— যেমন বালক, তিন অক্ষরের পরে ক— যেমন ক্রমেলক, এ রকম ভাবেও কথা সাজিয়ে অভিধান রচিত হয়েছে ; বিশ্বকোষ আর মেদিনীকোষ তার মধ্যে বিখ্যাত। আর আয়ুর্বেদের গাছগাছড়ার নাম আর তাদের গুণের অভিধান হচ্ছে আয়ুর্বৈদিক নিঘণ্ট, । তাতে বর্গীকরণ অর্থাৎ শ্রেণীভাগ এমন সুন্দর যা আধুনিক বিজ্ঞান মতেও মেলে। কল্পসূত্র তিন রকমের— শ্রেীতস্বত্র, গৃহস্থত্র ও ধর্মস্বত্র । আশ্বলায়ন প্রণীত শ্রেীতস্বত্র বেদাঙ্গে প্রধানভাবে নিবিষ্ট । শ্রেীতস্থত্রে বৈদিক যজ্ঞের বিধান প্রভৃতি সম্বন্ধে আলোচনা করা হয়েছে। শ্রেীতস্বত্রকে অবলম্বন করে অনেকগুলি বই লেখা হয়েছে ষষ্ঠ খ্ৰীস্টাব্দ থেকে দ্বাদশ খ্রীস্টাব্দের মধ্যে । ধর্মসূত্রে ব্রাহ্মণাদির নিত্যনৈমিত্তিক কাজের কথা আর বিধান আছে। এই ধর্মসূত্রকে অবলম্বন করে— ষষ্ঠ খ্রীস্টাব্দ থেকে বর্তমানকাল পর্যন্ত বহুবিধ পুস্তক রচিত হয়েছে। আপস্তম্ব গৌতম প্রভৃতির লেখা ধর্মস্থত্র মান্য । পরবতীযুগের স্মৃতি সংহিতা, স্মৃতির টীকা প্রভৃতি নিয়ে এই বিভাগের বহু প্রচার ঘটেছে। স্মৃতিগুলির অবলম্বন প্রধানভাবে ধর্মস্থত্র, আর অংশত শ্ৰেণীতসূত্র ও গৃহস্থত্র । এর মধ্যে কতক হচ্ছে প্রাচীন কতক হচ্ছে নবীন। ’ 顯 গৃহস্থত্রে দ্বিজগণের উপনয়নাদি সংস্কার প্রভৃতির বিধান আছে । সে যুগের সামাজিক জাদর্শ অবস্থা বুঝতে হোলে গৃহস্থত্র পাঠ অবশু কর্তব্য উইন্টানিজের মতো নৃতত্ত্ববিদগণেরও গৃহস্থত্র বিশেষ প্রয়োজনীয়। প্রাচীন গ্রীক রোমানদের বিধিব্যবস্থা জানবার জন্তে ইউরোপীয় পণ্ডিতদের