পাতা:সংস্কৃত সাহিত্যের কথা - নিত্যানন্দ বিনোদ গোস্বামী.pdf/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

অন্যান্য বিষয় ঘরবাড়ি-বাগানতৈরি, পশুচিকিৎসা, রান্নাকর, খেলাধুলা, শিকার, হাত মুখদেখে লক্ষণ বল, পরে আরবী পাণী বইয়ের অনুবাদ প্রভৃতি সংস্কৃত ভাষাতে রয়েছে। আরো অনেক বিষয়ে নতুন নতুন বই খোজ করে পাওয়া যাচ্ছে আর ছাপাও হচ্ছে। পাখির দুটো পাথার মতো হল সংস্কৃতের পক্ষে প্রাকৃত আর পালিভাষা। এদুটো না জানলে সংস্কৃতের সবটা জানা হয় না। বিশেষত লোকাচার দেশাচার প্রভৃতি অনেক বিষয় বাদ থেকে যায়, কাজেই এখানে তার খুব সংক্ষেপে নামগুলি করা যাচ্ছে। পালি ভাষায় লেখা বৌদ্ধশাস্ত্র তিনি ভাগে ভাগ করা। তার নাম ত্রিপিটক। স্বত্তপিটক বিনয়পিটক আর অভিধৰ্ম্মপিটক। সুত্তপিটকে বুদ্ধের আর তার জনকয়েক শিষ্যের উপদেশ ও আলাপ আলোচনা আছে। বিনয়পিটকে আচার ব্যবহার, ও অভিধৰ্ম্মপিটকে দর্শন আলোচিত হয়েছে । মৃত্তপিটক দীঘ নিকায়, মজিাম নিকায়, সংযুক্ত নিকায়, অংগুত্তর নিকায়, ও খুদক নিকায় এই পাচ ভাগে বিভক্ত। এর মধ্যে খুদকপাঠ, ধৰ্ম্মপদ, উদান, ইতিবৃত্তক, স্বত্তনিপাত, বিমানবত্থ, পেতৰখ, থেরগাথা, থেীগাথা, জাতক, নিদেশ, পটসম্ভিদ, অপদান, বুদ্ধবংস ও চরিষ্কাপিটক এই পনের খানা বই খুদক নিকায়ের অন্তর্গত। পারাজিক, পাচিত্তিয়, মহাবগগ চুল্লবগগ ও পরিবার এই পাঁচখানা বই নিয়ে বিনয় পিটক। ধৰ্ম্মসংগণি বিভঙ্গ কথাবখ, পুগুগল পঞক্ষত্তি, ধাতুকথা যমক, পটুঠান এই সাতখানা বই নিয়ে অভিধৰ্ম্ম পিটক। এই ত্রিপিটকের ওপর বুদ্ধঘোষ ও ধর্মপাল প্রভৃতি আচার্যেরা অখকথা অর্থাৎ ব্যাখ্যা লিখেছেন। এ ছাড়া ত্রিপিটক অবলম্বন করে আরো অনেকে বই লিখেছেন। মিলিন্দ", পঞ হে, বিস্কৃদ্ধি মগগ, আর অভিধৰ্ম্মখসংগহ এই তিনখানি মূল ত্রিপিটকের