পাতা:সচিত্র রেল অবতার - অনাথবন্ধু সেন.pdf/৫৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

উল্টা বুঝলি রাম।

৪৩

মানে কিছু বোঝা যাচ্ছে না। এই দুটো ৫ এখানে হবার অর্থ কি?”

 গিরিজা। তা’ আমি কেমন করে ব’লব? আমাকে যেমন দিয়েছে তেমনি আমি লিখেছি—মানে টানে হয় কিনা, সে খোঁজে আমার দরকার কি? আপনি ত কখন তারে কাজ করেন নি— তা হলে বুঝতেন—টেলিগ্রামগুলো নেওয়া কত কষ্টের। এই মাত্র একটা টেলিগ্রাম দিচ্ছিল, তারমধ্যে একটা কথা আছে “ডাউঘ্যাটার”। আমি কতবার Repeat নিলুম, সে খালি বলে “ডাউঘ্যাটার,, আমি বিরক্ত হয়ে কল ছেড়ে দিয়ে চলে এলুম। দেখুন দেখি আমাদের কাজ করা কত হাঙ্গামের।

 যোগেশবাবু নিজের টেলিগ্রামটির কথা ভুলে গেলেন। বিস্ময়ের সহিত বল্লেন—“ডাউঘ্যাটার”?

 গিরিজা। হাঁ, মশায়। Spelling দিচ্ছিল—“Daughter"

 যোগেশ বাবু বল্লেন—“গিরিজা নিশ্চয়ই তোমার মাথা খারাপ হয়ে গেছে, তা না হলে সামান্য একটা ইংরাজী কথা “ডটার” না বুঝতে পেরে—“ডাউঘ্যাটার”—“ডাউঘ্যাটার” ক’রচ?

 গিরিজার তখন চৈতন্য হ’ল। সে মাথা চুলকে বল্লে—“আজ মাথাটা বাস্তবিকই বড় খারাপ হ’য়ে গেছে যোগেশ বাবু। আজ এসে অবধি একবারও হাঁফ জিরুতে পারি নাই। দেন আপনার টেলিগ্রাম খানা, একবার ভাল করে Repeat নিয়ে দেখি।”