পাতা:সরোজিনী নাটক.djvu/৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।



সরোজিনী নাটক।



স্বর !—এখনও আমার হৃৎকম্প হ’চ্চে—আমার যেন বোধ হয়, সেই শব্দটী এই দিক থেকেই এসেছে। শুনেছি, দ্বিপ্রহর রাত্রে যোগিনীগণ এখানে বিচরণ করে, হয় তো তাদেরই কথা হবে। কিন্তু কৈ—কাকেও তো এখানে দেখতে পাচ্চিনে। (বজধ্বনি ) এ কি ?— অকস্মাৎ এরূপ বজনিনাদ কেন ? এ কি ! এ যে থামে না—মুহুর্মুহু ধ্বনি হচ্চে—কৰ্ণ যে বধির হয়ে গেল—আকাশ তো বেশ নিৰ্ম্মল, তবে এইরূপ শব্দ কোথা হ’তে আসচে ?—এ আবার কি ?—হঠাৎ ওদিকটা আলো হয়ে উঠলো কেন ?


( চিতোরের অধিষ্ঠাত্রী দেবী চতুভূজার

আবির্ভাব । )


(চকিত ভাবে ) এ কি ?—এ কি ! —চিতোরের অধিষ্ঠাত্রী দেবী চতুর্ভূজার মূৰ্ত্তি যে ! ( অগ্রসর হইয়া যোড়করে – প্রকাশ্যে । )

“বিপক্ষপক্ষনাশনীং মহেশহৃদ্ধিলাসিনীং ।

নৃমুণ্ডজালমালিকাং নমামি ভদ্রকালিকাং ॥”



(সাষ্টাঙ্গে প্ৰণিপাত করত উত্থান ) মাতঃ ! যবনদিগের সহিত যুদ্ধে জয় লাভার্থে তোমার পূজা দিবার জন্যে সমস্ত সৈন্য সমভিব্যাহারে আমি এখানে এসেছিলেম। মাত: ! তুমি কৃপা ক’রে স্বয়ং এসে এ অধমকে যে দর্শন দিলে, এ অপেক্ষ ক্ষুদ্র মানবের আর কি সৌভাগ্য হ’তে পারে ? মা ! যাতে যবনদের উপর জয় লাভ হয়, এই আশীর্বাদ কর ।