পাতা:সাহানামা.djvu/৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২ ভূমিকা শব্দে শেল পুরাণ করিয়া রাখি ঐব্যক্তি আইলে সেই কৰি তার চন্তুর্থ চরণ পূরিতে কহিৰ এব০ কছিৰ যদি এই কৰিম্বর চন্তুর্থ চরণ পূরণ করিতে পার তবে এস্থানে অবস্থান কর নন্তৰ প্ৰস্থান কর এই বাক্য স্থির করিয়া আপনার তিন চরণ রচনা করিয়া রাখলেন। ফেরদৌছি এ কবিদিগের নিকট আসিয়া ছেলাম কবিয়া বসিল তখন ঐ কবিরা ভাহ কে তাডাইবার মানসে যে পরা মশকরিয়াছিলেন সেইমত কহিলেন ভাহা শুনিয়া ফেরদৌছি কহিল আপনারা যাহা রচনা করিয়াছেন তাহ পাঠ করুণ জামার কৃত সাধ্য হয় তবে এক চরণ রচনা করিব নন্তৰ। এস্থান হইতে প্রস্থান করিব; পরে তাহারা যে তিনচরণ রচনা করিয়াছিলেন তাহ। পাঠ করিলেন । তাহার অখ । তোমার মখের তুল্য চন্দ্র, নহে দিপ্ত । উদ্যানে তাহার মত পুষ্প নহে তৃপ্ত। নয়ন কটাক্ষ তব মন করে লিপ্ত । এই ভিন চরন পাঠ করিলে ফেরদৌড়ি এক চরণ কছিল তাহার অর্থ এই । যেমও গেওয়ের শুল পষনে নিক্ষিপ্ত u ঐ কবির তাহ এবণ করিয়া অতি তুষ্ট হইয়া ফেরদে ছিকে আপনার দিগের ৰঘুর ন্যায় রাখিলেম, কিন্তু ভয় প্রযুক্ত কেৱদে ছিকেবাদসাহর নিকট কেছ লইয়া গেলন না, কিছু দিন পরে ফ্রেগেছি বাদশাহর এক উজির মামক নামেছিল তাহর সহিত কোন ক্রমে মিলিত হইয়া ভুছ সহরহ ইত্বে মালবার কারণ এবং আপন বাটিতে পুৰ্ব্ব বাদসাহ দিগের