পাতা:সাহানামা.djvu/৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সাহানামা १९ দৈত্য সেনা সঙ্গে লইয়। কাউছ বাদসাহর সহিত যুদ্ধ আরম্ভ করিল। কাউছের সেনাগণ দৈত্যদিগকে দেখিয়া ভীত হইয়া যুদ্ধে অসক্ত হইল, তখন দৈত্যের কাউছ বাদলাহকে এব• তাহার সেনাপতি দিগেকে সমস্ত ধৃত করিয়া কারগারে বদ্ধ করিল । পরে মজন্দরান দেশের বাদসাহ বাৱ সহস্ৰ দৈত্য কাউছের রক্ষক রাখিয়া জীবন ধারণ উপযুক্ত আহার প্রদানের জাজ্ঞা করিল, কাউছ এক লিপি জালকে লিখেলেন যে অামি তোমার বাক্য অগ্রাহ্য করিয়া এখানে আসিয়া কারাবন্ধ হইয়াছি, যদি আপনি অনুগ্রহ করিয়া অামারদিগেকে মুক্ত নাকর তৰে আমরা আরকোনমতে উদ্ধার হইতে পারিব না,এই পত্র কোনকৌশলক্রমে পাঠাইলেন। জাল এই পত্র পাইয়া অত্যন্ত ভাবিত হইলেন কিন্তু শত্র মিত্র কাহর নিকটে একথা প্রকাশ না করিয়া রোস্তমকে ডাকিয়া কহিল যে এ অতি খেদের বিষয় যে আমারদিগের বাদসাহ কয়কাউছ শত্রর হস্তে পতিত হইয়। কারগারে বন্ধ থাকি লেন আর আমরা ইহা শুনিয়াও সুখে সচ্ছন্দে রহিলাম। আমি অতি বৃদ্ধ হইয়াছি অধুন। এমত শক্তি নাই যে বাদসাহ কে কারাগার হইতে মুক্ত করিয়া আনি, তুমি যুব পুরুষ যদি পার তবে অগ্রসর হও ঈশ্বর তোমাকে যেৰূপ শক্তি দিয়াছেন তাহার উপযুক্ত কর্মকর,রোন্তম ইহা শুনিয়া স্বীকার করিয়া, কহিস সে অনেক দূর দেশ পাছে বাদসাহকে নষ্ট করে যদি জীবদসায় থাকেন তবে অবশ্য আনিব। জাল কহিল দুই পথ আছে এক পথে অনেক বিলম্বহয় আর এক পথে সপ্তাহে যাওয়া যায়, কিন্তু এই পথে নানা প্রকার উপদ্রব আছে