পাতা:সাহিত্যের পথে - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আধুনিক কাব্য S సిఫి সঙ্গে স্বীকার করা। এই প্রসঙ্গে এলিযটের একটি কবিতা মনে পড়ছে। বিষযটি এই ; বুড়ি মারা গেল— সে বডোঘরের মহিলা। যথানিযমে ঘরের ঝিলিমিলিগুলো নাবিযে দেওযl, শববাহকের এসে দস্তুরমত সমযোচিত ব্যবস্থা করতে প্রবৃত্ত । এ দিকে খাবার ঘরে বাড়ির বড়ো খানসামা ডিনারটেবিলের ধারে বসে, বাডির মেজো বিকে কোলের উপর টেনে নিযে। ঘটনাটা বিশ্বাসযোগ্য এবং স্বাভাবিক সন্দেহ নাই। কিন্তু সেকেলে মেজাজের লোকের মনে প্রশ্ন উঠবে, তা হলেই কি যথেষ্ট হল । এ কবিতাটা লে-বাব গরজ কী নিযে, এটা পডতেই বা যাব কেন । একটি মেযের সুন্দর হাসির খবব কোনো কবির লেখায যদি পাই তা হলে বলব এ খবরটা দেবাব মতো বটে, কিন্তু তার পরেই যদি বর্ণনায দেখি ডেন্টিস্ট এল, সে তার যন্ত্র নিযে পরীক্ষা করে দেখলে মেযেটির দাতে পোকা পডেছে, তা হলে বলতে হবে নিশ্চযই এটাও খবর বটে, কিন্তু সবাইকে ডেকে ডেকে বলবার মতো খবর নয়। যদি দেখি কারও এই কথাটা প্রচার করতেই বিশেষ ঔৎসুক্য তা হলে সন্দেহ করব, তারও মেজাজে পোকা পড়েছে। যদি বলা হয আগেকার কবির বাছাই করে কবিতা লিখতেন, অতি-আধুনিকরা বাছাই করেন না, সে কথা মানতে পারি নে ; এরাও বাছাই করেন। তাজা ফুল বাছাই করাও বাছাই, আর শুকনো পোকায-খাওযা ফুল বাছাইও বাছাই । কেবল তফাত এই যে, এরা সর্বদাই ভয করেন পাছে এদের কেউ বদনাম দেয যে এদের বাছাই করার শখ আছে। অঘোরপন্থীরা বেছে বেছে কুৎসিত জিনিস খায, দুষিত জিনিস ব্যবহার করে, পাছে এটা প্রমাণ হয ভালো জিনিসে তাদের পক্ষপাত। তাতে ফল হয, অ-ভালো জিনিসেই তাদের পক্ষপাত পাকা হযে ওঠে। কাব্যে অঘোরপন্থীর সাধনা যদি প্রচলিত হয তা হলে শুচি জিনিসে যাদের