পাতা:সাহিত্যের পথে - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সাহিত্যরূপ S ) & করে ঐ কবিতাটি যে একটি বিশেষ রূপ ধরে সম্পূর্ণ হয়ে উঠেছে সেইটেই হচ্ছে ওর কাব্যহিসাবে সার্থকতা। কবি পৃথিবী সম্বন্ধে বলছেন— Here, where men sit and hear each other groan ; Where palsy shakes a few, sad, last gray hairs; Where youth grows pale, and spectre-thin, and dies; Where but to think is to be full of sorrow And leaden-eyed despairs; Where Beauty cannot keep her lustrous eyes, Or new Love pine at them beyond to-morrow. একে ইন্‌টেন্সিটি বলা চলে না, এ রুগৃণ চিত্তের অত্যুক্তি, এতে অস্বাস্থ্যের দুর্বলতাই প্রকাশ পাচ্ছে— তৎসত্ত্বেও মোটের উপর সমস্তটা নিয়ে এই কবিতাটি রূপবান কবিতা । যে ভাবটিকে নিয়ে কবি কাব্য স্বষ্টি করলেন সেটি কবিতাকে আকার দেবার একটা উপাদান । দেবালয় থেকে বাহির হয়ে গোধূলির অন্ধকারের ভিতর দিয়ে সুন্দরী চলে গেল, এই একটি তথ্যকে কবি ছন্দে বাধলেন— যব গোধুলিসময় বেলি ধনী মন্দিরবাহির ভেলি, নবজলধরে বিজুরিরেহ দ্বন্দ্ব পসারি গেলি । তিন লাইনে আমরা একটি সম্পূর্ণ রূপ দেখলুম— সামান্ত একটি ঘটনা কাব্যে অসামান্ত হয়ে রয়ে গেল । আর-একজন কবি দারিদ্র্যদুঃখ বর্ণন করছেন। বিষয়হিসাবে স্বভাবতই মনের উপর তার প্রভাব আছে। দরিদ্র ঘরের মেয়ে, অন্নের অভাবে আমানি খেয়ে তাকে পেট ভরাতে হয়— তাও-যে পাত্রে করে খাবে এমন সম্বল নেই, মেজেতে গর্ত করে আমানি ঢেলে খায়— দরিদ্র-নারায়ণকে