পাতা:সাহিত্যের পথে - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পঞ্চাশোধাম ॐ,89 পথে চলতে চলতে মর্তলীলার প্রাস্তবর্তী ক্লাস্ত পথিকের এই নিবেদনপত্র সসংকোচে "তরুণসভায’ প্রেরণ করলেম । এই কালের ধারা অগ্রণী তাদের কৃতাৰ্থত একান্তমনে কামনা করি। নবজীবনের অমৃতপাত্র যদি সত্যই তারা পূর্ণ ক’রে এনে থাকেন, আমাদের কালের ভাও আমাদের দুর্ভাগ্যক্রমে যদি রিক্ত হযেই থাকে, আমাদের দিনের ছন্দ যদি এখনকার দিনের সঙ্গে নাই মেলে, তবে তার যাথার্থ্য নুতন কাল সহজেই প্রমাণ করবেন— কোনো হিংস্রনীতির প্রযোজন হবে না। নিজের আযুৰ্বদৈর্ঘ্যের অপরাধের জন্য আমি দায়ী নই ; তবে সাত্বনার কথা এই যে, সমাপ্তির জন্য বিলুপ্তি অনাবশ্বক। সাহিত্যে পঞ্চাশোধৰ্ম নিজের তিরোধানের বন নিজেই স্থষ্টি করে, তাকে কর্কশকণ্ঠে তাড়না করে বনে পাঠাতে হয না । অবশেষে যাবার সময বেদমন্ত্রে এই প্রার্থনাই করি— যদু ভদ্রং তন্ন আসুব : যাহা ভদ্র তাহাই আমাদিগকে প্রেরণ করে । ১৩৩৬ ফাল্গুন 〉や