পাতা:সাহিত্য-সাধক-চরিতমালা প্রথম খণ্ড.pdf/১০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কৃষ্ণকমল ভট্টাচার্য্য হয় নাই ; পরে প্রেসিডেন্সি কলেজেৰ অধ্যাপক ইত্ব আন্দাজ ইংরাঞ্জি ১৮৬৪ সালে উহা মুদ্রিত করিয়াছিলাম –‘পুরাতন প্রসঙ্গ', ১ম পৰ্য্যায়ু,

  • . : - డి !

বচন:র নিদর্শন : জনমেজযেৰ সৰ্পসত্ৰ সমাপিত হইলে তিনি কিছুকাল সাবধানে ৰাজাকাৰ্য পর্যবেক্ষণে প্রবৃত্ত হইলেন। তখন বহুদুম তাগর স্বপ্নদর্শী নয়নের অগোচর থাকাতে দেশের দুরবস্থার শেষ ছিল না । পথ, যাট, নগর, গ্রাম সৰ্ব্বস্থানই দুৰ্গন্ত দগুবর্গে পরিপূর্ণ ছিল। গ্রামের তির দিবাভাগে মানুষ হত্য হইত। পধিকের শ্বfsসামান্স সামগ্রী লইয়া যাইতে, লুব্ধক হস্তে পতিত হইবার শঙ্কা করিত কাচারও গৃহে রূপান্তী রমণী থাকিলে লম্পটের ছলে, বলে, বা কৌশলে অপহরণ কবিয়ু লইত সৈন্য সমূহ বহুদিন উপেক্ষিত থাকা নিতাপ্ত অকৰ্ম্মণ্য হইয়া গিযুছিল এবং নিয়মের দাম হইতে মুক্তৰন্ধন হইয় প্ৰজাগণের উপর নাম অত্যাচার কল্পিত । দেশের গুপ্তি অতি দুৰ্ব্বল হওয়াতে শাস্তি সূক্ষ নিতান্ত দুঃসাধ্য হইয়াছিল। কৃষি ও বাণিজ্যের ব্যাঘাতে কত সমৃদ্ধ পেীর মুখস্বাচ্ছদ্য হইতে দাবিড়া গহ্বরে নিপতিত হইল । রাজস্বের অতিশয় মৃনিত হইল। স্থানে স্থানে ছভিক্ষ হইয়। প্রজাদিগের হাহাকারে গগন বিদীর্ণ হইত। ভিক্ষের সহচর মত্বক, যেন সম্মার্জনী দ্বারা কত গ্রাম নগর শুষ্ঠ করিয়া গেল। যথায় যাও, সেইখানেই ক্ষুধাত্ত কণ্ঠশ্বাস প্রাণীর মরণ যাতন দেখিতে পাওঁ । বেস্থান পূৰ্ব্বে জনসমাকীর্ণ ধনপূর্ণ নগরের অধিষ্ঠান থাকিয় ক্রবিফন্ধের কোলাহলে পরিপূর্ণ থাকিত, এখন তথায় নির্জনবাসী পেচকের কর্ণকঠোর চীংকার, ঝিল্লীরব, সপেন্ধ যুৎকার, ও পূতিগন্ধ পবনের বিষাদজনক হুস্থধ্বনি শ্রবণ গোচর হইত। রাজপথের উপর নিবিড় জঙ্গল, কঙ্কালরাশি ও হিংস্ৰ জন্তুর নখপদ দেখিয়। পথিকেরা উদ্বিগ্নমানসে, সভয় পদসঞ্চারে, বসনে নাসা জাম্বাদন কৰিয়।