পাতা:সাহিত্য-সাধক-চরিতমালা প্রথম খণ্ড.pdf/৩৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বা ভাষায় প্রথম বাংলা অভিধানকার হিসাবে রামচন্দ্র বিদ্যাবাগীশের নাম বাঙালী মান্ত্রেরই স্মরণীয়। কিন্তু বিস্তাবাগীশ মহাশয় মাস্ত্র অভিধানকারষ্ট ছিলেন না, তিনি এক জন খ্যাতনামা স্বাঞ্জ পণ্ডিত ছিলেন । সে যুগের সামাজিক বহু ব্যাপারেই তাহাকে বিধান দিতে হইত। এতদব্যতীত, তিনি ব্রাহ্মসমাঞ্জের প্রথম আচাধ্য ছিলেন । দুঃখের বিষয়, তাহার সম্বন্ধে এখন পৰ্য্যস্ত কোনও বিস্তৃত আলোচনা হয় নাই । ইহাঙ্কে আমাদের জাতীয় অকৃতজ্ঞতাক্ট প্রকাশ পাইয়াছে । সেকালের সাময়িক পরাদি এবং কলিকাতা সংস্কৃত কলেজের পুরাতন নথিপত্র হইতে আমি বিদ্যাবাগীশ মহাশয়ের কিছু বিবরণ সংগ্ৰহ করিয়াছি। এই পুস্তিকীয় তাহাই লিপিবদ্ধ করিলাম। বাল্য ও ছাত্রজীবন বিষ্ঠাবাগীশের মৃত্যুর অব্যবহিত পরে—১৮৪৪ খ্ৰীষ্টাব্দের এপ্রিল মাসে ‘তত্ত্ববোধিনী পত্রিকা’য় তাহার একটি সংক্ষিপ্ত জীবনবৃত্তান্ত প্রকাশিত হয় । তাহাতে র্তাহার বাল্য ও ছাত্রজীবন সম্বন্ধে নিম্নলিখিত বিবরণটি পাওয়া যায় : भशचा वैदूख बांमध्ष विज्वागैम »१०१ भएकब २० भाष बूषराठ পালপাড়া নামক গ্রামে জন্ম গ্রহণ কবিয়ছিলেন। তাহাৰ পিতা প্রযুক্ত লক্ষ্মীনাৰায়ণ তর্কভূষণের চারি পুত্র ; জ্যেষ্ঠ পুত্রের নাম নন্দকুমার