পাতা:সাহিত্য-সাধক-চরিতমালা প্রথম খণ্ড.pdf/৩৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মৃত্যু সহকারী-সম্পাদকরূপে কিছু দিন সংস্কৃত কলেজে কাৰ্য্য করিবার পর বিদ্যাবাগীশ পীড়াগ্রস্ত হন এবং দীর্ঘকাল রোগভোগের পর ১৮৪৫ খ্ৰীষ্টান্ধের ২রা মার্চ র্তাহার মৃত্যু হয় । ‘তত্ত্ববোধিনী পত্রিকা’য় প্রকাশ :– তিনি ১৭৪৫ শকের মাঘ মাসে পক্ষাঘাত ৰোগে পীড়িত হইলেন । তদবধি ইংরাজ, ও বাঙ্গালি চিকিৎসক দ্বারা অনেক প্রকার চিকিৎসা কষ্টয়াছিল, কিন্তু তাহাতে উপশম না ইষ্টয় শরীর ক্রমশঃ অবসন্ন হইতে লাগিল । ইঙ্গতে তিনি অনুভব করিলেন, যে কাশী অঞ্চলের জল বায়ু স্বস্থতাদামুক, এবং তথায়ু উত্তম উত্তম মোসলমান চিকিৎসক স্বারা চিকিৎসা হইবারও সম্ভাবনা, অতএব তিনি ১৭৬৬ শকের ৯ ফাগুণ বুধবার দিব! ময় ঘণ্টার সময়ে কাশী যাত্র কবিলেন । কিন্তু তথায় উত্তীর্ণ হইবার পূৰ্ব্বে পরমেশ্বর তাহাকে পীড়া ৰম্বণ ইষ্টতে মুক্ত করিলেন, এবং তিনি ছয় কঙ্কা মাত্ৰ বৰ্ত্তমান রাগিয়া গত ২. কাঙ্কণ বিবার । ২ মার্চ ১৮৪৫ ] দিব অষ্ট ঘণ্টার সময়ে মুরশিদাবাদে ৫৯ বৎসর ২১ দিন বয়ঃক্রমে ষ্টক্ত লোক হইতে অবস্থত হইলেন। সংস্কৃত কলেজের কৰ্ম্মচারিবর্গের বেতনের খাতায় দেখিতেছি, ১৮৪৪ খ্ৰীষ্টাব্দের সেপ্টেম্বর হইতে মৃত্যুকাল পর্য্যন্ত ছয় মাস বিদ্যাবাগীশ ছুটিতে ছিলেন এবং তাহার স্থলে গোবিন্দ শিরোমণি অস্থায়ী ভাবে কাৰ্য্য করিয়াছিলেন। সংস্কৃত কলেজের তদানীন্তন সেক্রেটরী রসময় দত্ত ৫ এপ্রিল ১৮৪৫ তারিখে কাউন্সিল অব এডুকেশনকে যে পত্র লেখেন, তাহাতে বিদ্যাৰাগীশের মৃত্যুর সঠিক তারিখ দেওয়া আছে। পত্ৰখানি এইরূপ — With reference to my letter dated 26th February last subm\ting for sanction a Bill for a moiety of salary of Kamchandar