পাতা:সাহিত্য-সাধক-চরিতমালা প্রথম খণ্ড.pdf/৪০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবিত্ব ও কবিতা ! করিতে চান, তাহার। বঙ্কিমচন্দ্র-সম্পাদিত ‘কবিতাসংগ্রহ ও মণীন্দ্রকৃষ্ণ গুপ্ত-সম্পাদিত ‘গ্রন্থাবলী’ ব্যবহার করিবেন । সব স্থায় ফাক তুনিয়াধ মাঝে বাবা সব হায় ফাক্‌, বাবা সব হাৰ্য ফাক্‌ ৷ ধনের গৌরবে কেন মিছা কর জাক, বাৰ মিছা কর জাক । পেয়েছ ধে কলেবর, দৃশ্য বটে মনোহর, মরণ তইলে পর, পুড়ে হবে থাক । আমি আমি অহঙ্কার, আমার এ পরিবার, কোথায় রতিবে আর, আমি আমি ধাক্ । ছুনিয়ার মাঝে বাব সব হায় ফাৰু ! . নিশ্বাস হইলে কুদ্ধ, মৃত্তিকায়ু দেহু শুদ্ধ, চাপি দিকে হবে শুদ্ধ, রোদনের ইক্ ি। মুদিলে যুগল আঁখি, সকল হইবে ফাকি, কোথায় বহিবে চাকি, ভেঙ্গে বাবে চাক । স্থনিয়ার মাঝে বাবা সব হয়ে ফাঙ্ক । মিথ্য সুথে সদা রত, শান্ত শত অমুগত, গৌরব করিয়া কত, গোপে দাও পাক্ । পে{সাকের দাম মোটা, জুতা পারে এড়িওট, কপাল জুড়িয়৷ ফেঁাটা, শোভ করে লাক্ । দুনিয়ার মাঝে বাবা সব স্তায় ফাক্‌ ৷ মারীর কোমল গাত্র, মদনের ভূয়াপাত্র, তাহার উপর মাত্র, নম্বনের তাক । বসনে বিচিত্র সঞ্জ, कांदांब ब्रश्रेिज काज,