পাতা:সাহিত্য পরিষৎ পত্রিকা (ষট্‌বিংশ ভাগ).pdf/৩২

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


RR সাহিত্য-পরিষৎ-পত্রিকা [ Þx It') লিখিতে গেলে নিজের অভ্যস্ত বানান, এমন কি, শব্দ-বিভক্তি আসিয়া পড়ে । ইহা দেখিয়া ভাষার কাল ও লিপিকারের দেশও ধরা পড়িতে পারে । ৮। প্রত্ন-লিপি-বিৎ পাঠককে কঠিন পরীক্ষায় ফেলিয়াছেন । তিনি বলিতেছেন, পুখীর তিন প্রকার হস্তাক্ষর এক লিপিকরেরও হইতে পারে। শুনিয়াছি, আদালতে জাল দাির্সলি उ८ うに*国 જૂરો, বেদ নয়, 0DuuDu DBDDS KSBDBD KKS S DBBBDS DDBBDBDD BBD DDYY আছে! পুৰ্গখানা অ-পূৰ্ব্বই বটে। আরও আশ্চর্যের কথা, এক সময়ের এক দেশের তিন জনের হাতের অক্ষর, প্ৰাচীন ও অর্বাচীন, দুই আকারের হইতে পারে। প্ৰত্যক্ষে সংশয় নাই, । সংশয় সেখানে, ধে খানে প্রত্নলিপিবিত্ৰ বৎসর গণিয়া “স্থির-সিদ্ধান্ত” করিয়াC豆可(s, কৃষ্ণ কীৰ্ত্তনে”র আবিস্তু ৩ পুখী * S७b” t છેિ. (સ 96त, गडबड: भूछेम्र 5 শতাব্দীর প্রথমাদ্ধে লিখিত হইয়াছিল।” সংক্ষেপে তাহাব যুক্তি এই ৷৷ ১৩৮৫ খ্ৰীষ্টাব্দ হইতে ১৪৯৫ খ্ৰীষ্টাব্দের মধ্যে লিখিত তিনখানি গ্রন্থের অক্ষর অপেক্ষ। "কৃষ্ণকীৰ্ত্তনের প্রাচীন অক্ষরDBBD BKuBBBD S SgmBOBBDDS DDSDDBD SDSDD S DDS DDS DBDB BBDBD BS SBE হয় হেতু এই, “কৃষ্ণকাত্তনে যে সমস্ত প্রাচীন অ্যাকারের অক্ষর ব্যবহৃত হইয়াছে, তাহার তিন-চতুর্থাংশের অধিক অক্ষর পূৰ্ব্বোক্ত গ্ৰন্থত্ৰয়ে ব্যবহৃত হয় নাই ।” যুক্তিটা তলাইয়া বুঝিতে হইবে । জ্ঞাত কি কি ? (১) পুথিতে প্ৰাচীন ও অপেক্ষাকৃত আধুনিক হস্তাক্ষর আছে ; (২) এক জুনের অনুকৃত অক্ষর আছে ; (৩) ইহার প্রাচীন অক্ষরসমূহ [ মনে করি যেনে ] ১ ৮৫ খ্ৰীষ্টাব্দের পূর্দের, অর্থাৎ পরে আর ছিল না। এই তিন জ্ঞাত হেতু হইতে, “স্থির” দূরে থাক, “অ-স্থির” সিদ্ধান্ত ও করিতে পারিতেছি না যে, আবিষ্কৃত পুখী, ১৩৮৫ খ্ৰীষ্টাব্দের পূৰ্ব্বে লিখিত হইয়াছিল। হয় তা আরও cश्ट्र स्रां८छ्, बांश প্রত্ন-লিপিবিৎ লেখেন নাই। সে যাহা হউক, (১) প্ৰা-চী-ন অর্থে কি বুঝিব, জানি না। (২) নবীনের সহিত প্রাচীনের সমাবেশ আছে, অথচ নবীনকে ছাড়িয়া কেন প্ৰাচীনকেই BBB DBBBS DDD BB DS SSDS DBDD KKESK0L0D DBBD BBBDBuSDDD তিন প্ৰমাণ-গ্রন্থের লিপিকারের দেশ, শিক্ষা, সংসৰ্গ জানি না। “কৃষ্ণকীর্তনে”র লিপিকারের সহিত তুলনা করিতে পারিতেছি না। আমি প্র-ত্ব নামেই ডরাই, প্রত্ন-ত-ত্ত্বের ত কথাই নাই । কারণ, প্রত্নতাত্বিকেরা জ্ঞাত ও অজ্ঞাত তথ্য এমন মিশাইয়া দেন যে, নিশা-হারা হইয়া পড়ি । ‘ প্রত্নলিপি-বিৎ রাখাল বাবুর বিচারে সে দোষ নাই, বরং অনাবশ্যক বন্ধন আছে । তিনি লিখিয়াছেন, “ “কৃষ্ণকীৰ্ত্তনে'র যে পুথি আবিস্কৃত হইয়াছে, তাহার প্রাচীন পত্রগুলিতে যে বর্ণমালা ব্যবহৃত হইয়াছে, তাহার অধিকাংশ স্বর ও ব্যঞ্জনবর্ণের আকার আধুনিক। যে কয়েক স্থলে স্বর ও uppgings DKtDDDBB DDBD gDBS BDK DD BBBE KSJD tBBESK BBD S L0LJDS KLL S SYLS KLgTSS KKD S ttuS DBBYB SSD SDDJDH S SDEES (Y) heta 'settsa' বিশেষণের অর্থ ‘পূৰ্ব্বকালে ছিল, পরে ছিল না।” এই অখ না। ধরিলে তাহার যুক্তি ব্যর্থ