পাতা:সিতিমা.pdf/৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সিতিমা । وU\68 ( বাহকদ্বয় কর্তৃক খাটিয়া আনয়ন এবং দ্রুতবেগে বিক্রমকর্তৃক পীড়িতের भूथांश्वद्म। ऎह्मघ्न ) উজ্জ্বল। ( চীৎকার পূর্বক ) সিতিমা, তুমি ? তুমি এতকাল কারাগারে বন্দিনী ছিলে ? হায় হায়! আমাকে একি পাপ করালে ? এক কলঙ্ক ক্ষালন ক’রতে বলে, একি মহা কলঙ্কে আমায় দাগী করে দিলে ? (নতজানু হইয়া সিতিমার হস্তদ্বয় গ্রহণ) সিতিমা । [ক্ষীণ কণ্ঠে, ধীরে ] কুমার, আমি বন্দিনী ছিলাম না। আমি তো মুক্ত ছিলাম। আমি পথে আসতে আসতে শুনলাম বিক্রম সিংহ সিংহবিক্রমে মহারাজের রাজ্য ও জীবন রক্ষা করেছেন-আমি বুঝলাম সে তুমি। গৌরবে গর্বে আমার বুক ফেটে যাবার মত হয়েছে। আমার মন কারাগারে ছিল না, সৰ্ব্বক্ষণ উজ্জ্বল সিংহের সঙ্গে যুদ্ধক্ষেত্রেই ছিল। আমি সুখী। কুমার আমি ধন্য-আমার জীবনে আমি একটু কিছু করেছি।-- তোমাকে বঁচিয়েছি।-- [ মহারাজ ও মহারাণী সিংহাসন হইতে অবতরণপূর্বক শয্যাপার্শ্বে দাড়াইয়াছেন দেখিয়া যুক্ত করে } মহারাজ, ক্ষমা চাই। মহারাণী ক্ষমা । বিক্রম। মহারাজ, আমি হতভাগ্য উজ্জ্বল। [ শিরস্ত্ৰাণাদি উন্মোচন ] এই কঙ্কালশেষ নারী আমার বাল্যাসঙ্গিনী, আমার সঙ্গীত শিক্ষায় সতীর্থ সিতিমা । সন্ন্যাসীর বেশ ধারণ করে আমাকে বীরগ্রামের কারাগার থেকে মুক্ত করে, নিজে আমার স্থান গ্ৰহণ করেছিলেন, আমি তখন চিনতে পারিনি। মহারাজ । কি আশ্চৰ্য্য !