পাতা:সিরাজদ্দৌলা - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।


 

চতুর্থ পরিচ্ছেদ।


“বগী এল দেশে”।

 বাঙ্গালীর অন্নগত প্রাণ। সেই জন্য বাঙ্গালী কিছু অতিমাত্রায় শান্তিপ্রিয়। বর্ষা-সলিল-প্লাবিত অত্যুর্ব্বর সমতলক্ষেত্রে সময় বুঝিয়া একমুষ্টি ধান ছড়াইয়া দিতে পারিলে, যথাকালে পর্য্যাপ্ত শস্য-সম্পদে যাহার গৃহপ্রাঙ্গণ পরিপূর্ণ হইয়া যায়, সে কখন গ্রাসাচ্ছাদনের জন্য “বায়ু উল্কাপাত বজ্রশিখা” ধরিয়া দেশে দেশে ছুটাছুটি করিতে শিখে না। আজকাল বাষ্পায়ানের কল্যাণে বাষ্পাকুললোচমে বাঙ্গালী যুবক হা অন্ন! হা অন্ন! মবে দেশ বিদেশে ভিক্ষাভণ্ড লইয়া মেদিনী-পৰ্য্য- টনে বাহির হইতেছেন; কিন্তু আমরা যে সময়ের কথা বলিতেছি, তখন পর্যন্তও বাঙ্গালীর মেরুদণ্ড অন্নাভাবে অবনত হইয়া পড়ে নাই। এই সকল কারণে পিতৃপিতামহের বাস্তু ভিটার সঙ্গে বাঙ্গালীর হৃদয় মন এমন মেহবন্ধনে আবদ্ধ হইয়া পড়িয়াছিল যে, নিতান্ত দারে