পাতা:সুকুমার রায় রচনাবলী-দ্বিতীয় খন্ড.djvu/৪৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ᏭᏔ তার পরেতে শেষটা ক্ৰমে সফতি এল প্রাগে চলল গাধা খোদ মনিবের ড্রইংরুমের পানে । মনিবসাহেব ঝিমুচ্ছিলেন চেয়ারখানি জুড়ে, গাধার গলার শব্দে হঠাৎ তন্দ্রা গেল উড়ে । চমকে উঠে গাধার নাচন যেমনি দেখেন চেয়ে, হাসির চোটে সাহেব বুঝি মরেন বিষম খেয়ে । ভাবল গাধা—এই তো মনিব জল হয়েছেন হেসে এইবারে যাই অাদর নিতে কোলের কাছে ঘেঁষে । এই-না ভেবে এক্কেবারে আহাদেতে ক্ষেপে চড়ল সে তার হাটুর ওপর দুই-পা তুলে চেপে । সাহেব ডাকেন "জাহি ত্ৰাহি’ গাধাও ডাকে "ঘ্যাকো” ( অর্থাৎ কিনা কোলে চড়েছি, এখন আমায় দ্যাখো । ) ডাক শুনে সব দৌড়ে এল ব্যস্ত হয়ে ছুটে, দৌড়ে এল চাকর-বাকর মিস্ত্রি মজুর মুটে । দৌড়ে এল পাড়ার লোকে, দৌড়ে এল মালিকারুর হাতে ডাণ্ডা লাঠি, কারু-বা হাত খালি । ব্যাপার দেখে অবাক সবাই, চক্ষু ছানাবড়া— সাহেব বললে, “উচিত মতন শাসনটি চাই কড়া।” “হা হা’ বলে ভীষণরকম উঠল সবাই চটে, দে দমাদমূ মারের চোটে গাধার চমক ছোটে । ছুটল গাধা প্রাণের ভয়ে গানের তালিম ছেড়ে, ছুটল পিছে একশো লোকে হুড় মুড়িয়ে তেড়ে । তিন-পা যেতে দশ ঘা পড়ে, রক্ত ওঠে মুখে— কম্পেট শেষে রক্ষা পেল কাটার ঝোপে ঢুকে । কাটার ঘায়ে চামড়া গেল, সার হল তার কাদা , ব্যাপার শুনে বললে সবাই, “সাধে কি বলে গাধা ।” সন্দেশ—ফলিগুন ১৩২৭ সুকুমার সমগ্র রচনাবলী।