পাতা:সুকুমার রায় রচনাবলী-দ্বিতীয় খন্ড.djvu/৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রামে, কত ছোটো-ছোটো পাঠশালায়, কত বড়ো-বড়ো কলেজে, তার কীর্তির পরিচয় রয়েছে। শুধু লাইব্রেরি করবার জন্যই নানা জায়গায় তিনি প্রায় বিশ কোটি টাকা খরচ করে গেছেন । স্কটল্যাণ্ডের গরিব ছাত্রদের পড়ার সাহায্যের জন্য তিনি অন্তত তিন কোটি টাকা দান করেছেন । তার নিজের জন্মস্থান সেই ছোটো গ্রামটি আজ বেশ একটি শহর হয়ে দাঁড়িয়েছে, সে কেবল তার দানের জোরে । এই শহরটির উন্নতির জন্য তিনি যে সম্পত্তি রেখে গেছেন, তার আয় হয় বছরে চার লক্ষ টাকা । বীরত্বের পুরস্কারের জন্য আমেরিকায় ও ইংলণ্ডে তিনি দুটি Hero fund বা বীর ভাণ্ডার স্থাপন করে গেছেন , বিপদের সময়ে অন্যের প্রাণ বাঁচাতে গিয়ে যারা নিজেরা আহত ও অকৰ্মণ্য হয়ে পড়ে, এই ভাণ্ডার থেকে তাদের খাওয়া-পরার সমস্ত খরচ দেওয়া হয় । এমনি করে ছোটো-বড়ো যত অসংখ্যরকমের দান তিনি করে গেছেন, সব যদি এক সঙ্গে ধরা যায়, তা হলে তার দানের হিসাব হয় প্রায় একশো কোটি টাকা । এত টাকা আমাদের ভালো করে কল্পনাই হয় না । হিসাব বলবার সময় “অযুত লক্ষ নিযুত কোটি অব দ বৃন্দ’ সব আমরা গড় গড় করে বলে যাই, কিন্তু সে যে কত বড়ো অঙ্কের হিসাব তার ধারণা করতে গেলেই মাথায় গোল লেগে যায় ৷ একশো কোটি টাকা কতখানি জান ? একজন লোক যদি প্রতি সেকেণ্ডে একটি করে টাকা দান করে, তা হলে একদিনে তার ছিয়াশি হাজার টাকা খরচ হয়ে যায় । কিন্তু এই হিসাবেও একশো কোটি টাকা খরচ করতে তার অন্তত বত্রিশ বৎসর সময় লাগবে—তাও, যদি সারাদিন সারারাত না খেয়ে না ঘুমিয়ে সে কেবল ঐ কাজই করতে থাকে একশো কোটি টাকা ভাঙিয়ে যদি পয়সা আনাও, তা হলে সেই পয়সা দিয়ে এই কলকাতার মতো গোটা দুই শহরকে একেবারে ঢেকে দেওয়া যাবে । এই ভারতবর্ষের সমস্ত লোক, ছেলে বুড়ো স্ত্রী পুরুষ, সবাই মিলে যদি সেই পয়সা কুড়োতে আসে, তা হলে প্রত্যেকে প্রায় দুইশে পয়সা নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারবে । এই কয়েকদিন হল কার্নেগীর মৃত্যু-সংবাদ এদেশে এসেছে । তার জীবনের সঞ্চিত টাকা তিনি প্রায় সমস্তই দান করে গিয়েছেন—তার তুলনায় যা বাকি রয়ে গেছে, সে কেবল সিন্ধুকের মধ্যে এক মুক্তিটর মতো । পিপাসার জল ইংলণ্ডের ইতিহাসে বীরত্বের জন্য যাহাদের নাম চিরস্মরণীয়, সার ফিলিপ সিডনি তাহাদের মধ্যে একজন । রানী এলিজাবেথ হইতে সাধারণ প্রজা পর্যন্ত সকলেই তাহার বীরত্বের কথা জানিত এবং তাহাকে সম্মান করিত । এলিজাবেথ বলিতেন, “সার ফিলিপ এই যুগের শ্রেষ্ঠ রত্ন ।" সার ফিলিপ যে একজন বড়ো যোদ্ধা ছিলেন সে বিষয়ে কোনো লুকুমার সমগ্র রচনাবলী । ৯ • א