পাতা:সুকুমার রায় রচনাবলী-প্রথম খন্ড.djvu/১৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সাগর যে থায় সাগর যেথায় লুটিয়ে পড়ে নতুন মেঘের দেশে, আকাশ ধোয়া নীল যেখানে সাগর জলে মেশে। মেঘের শিশু ঘামায় সেথা আকাশ দোলায় শয়ে, ভোরের রবি জাগায় তারে সোনার কাঠি ছয়ে। সন্ধ্যা সকাল মেঘের মেলা কল কিনারা ছাড়ি, রঙবেরঙের পাল তুলে দেয় দেশ-বিদেশে পাড়ি। মাথায় জটা মেঘের ঘটা আকাশ বেয়ে ওঠে, জোছনারাতে চাঁদের সাথে পাল্লা দিয়ে ছোটে। কোন অকলের সন্ধানেতে কোন পথে যায় ভেসে, পথহারা কোন গ্রামের পারে, নাম-জানা-নেই দেশে। ঘণীপথের ঘোরের নেশা দিকবিদিকে লাগে, আগল-ভাঙা পাগল হাওয়া বাদল রাতে জাগে; ঝড়ের মুখে স্বপন টুটে, অাঁধার আসে ঘিরে, মেঘের প্রাণে চমক হানে আকাশ চিরে চিরে! বকের মাঝে শঙ্খ বাজে দন্দভি দেয় সাড়া, মেঘের মরণ ঘনিয়ে নামে মত্ত বাদল ধারা। সন্দেশ—১৩২১ डयाय ८ढ़ खञा ८ढणा उभा शू পবে গগনে রাত পোহালো, ভোরের কোলে লাজক আলো নয়ন মেলে চায়। আকাশতলে ঝলক জনলে, মেঘের শিশু খেলার ছলে আলোক মাখে গায়। সোনার আলো, রঙিন আলো, সবপেন অাঁকা নবীন আলো—আয় রে আলো আয়। আয় রে নেমে অাঁধার পরে, পাষাণ কালো ধৌত করে আলোর ঝরনায়। ঘুম ভাঙালো পাখির তানে জাগ রে আলো আকুল গানে অব ল নীলিমায়। আলসভরা আখির কোণে, দুঃখভয়ে অাঁধার মনে, আয় রে আলো আয়৷ সন্দেশ-১৩২৬ పా60 সকুমার সমগ্ন রচনাবলী