পাতা:সুকুমার রায় রচনাবলী-প্রথম খন্ড.djvu/২৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নন্দগনপী হঠাৎ কেন দাপরে রোদে চাদর দিয়ে মুড়ি চোরের মতো নন্দগোপাল চলছে গুড়ি গুড়ি ? লুকিয়ে বুঝি মাখোসখানা রাখছে চুপি চুপি ? আজকে রাতে অন্ধকারে টেরটা পাবেন গল্পী ! আয়না হাতে দাঁড়িয়ে গল্পী হাসছে কেন খালি ? বিকট রকম পোশাক ক’রে মাখছে মুখে কালি ! এম্বিন করে লম্বফ দিয়ে ভেংচি যখন দেবে নন্দ কেমন অৎিকে যাবে—হাসছে সে তাই ভেবে । অাঁধার রাতে পাতার ফাঁকে ভূতের মতন কেরে ? ফলিদ এ’টে নন্দগোপাল মুখোস মুখে ফেরে! কোথায় গল্পী, আসকে না সে ইদিক পানে ঘুরে-- নন্দদাদার হংেকারে তার প্রাণটি যাবে উড়ে । হোথায় কেরে মাতি ভীষণ মুখটি ভরা গোঁফে ? চিমটে হাতে জংলা গল্পী বেড়ায় ঝাড়ে ঝোপে ! নন্দ যখন বাড়ির পথে আসবে গাছের আড়ে নন্দ চলেন এক পা দ পা আস্তে ধীরে গতি টিপি টিপি চলেন গল্পী সাবধানেতে অতি— মোড়ের মুখে ঝোপের কাছে মারতে গিয়ে উ“কি দলই সেয়ানে এক্কেবারে হঠাৎ মুখোমুখি ! নন্দ তখন ফন্দি ফাঁদন কোথায় গেল ভুলি কোথায় গেল গল্পীর মুখে মার মার মার বুলি!