পাতা:সেক্‌সপিয়র কৃত গ্রন্থ হইতে উদ্ধৃত অপূর্ব্বোপাখ্যান.pdf/৯০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৮১
শীতকালের উপন্যাস।

রাজ্যাধিপতি মহিষীর দোষ বিচার নিমিত্ত সভা করিয়া অধ্যাসীন হইলে দুর্দৈবোপহতা রাণী কারাগার হইতে নীতা হইয়া অশ্রুপূর্ণ নয়নে তাঁহাদের সমক্ষে দণ্ডায়মান হইলেন। এতদবসরে এপলো দেবের মন্দির হইতে ক্লিয়মিনিস্ ও দাইয়ন্‌ মহান্তের লিপি হস্তে করিয়া প্রত্যাগমন পূর্ব্বক সেই সভায় আসিয়া উপস্থিত হইল এবং সানন্দ মনে নরনাথের হস্তে আনীত পত্রী প্রদান করিল। রাজা পত্রী প্রাপ্তে বিকসিত করিয়া উচ্চৈঃস্বরে পাঠ করিতে আদেশ করিলেন। সেই লিপি হইতে মহান্তের এই কথা ব্যক্ত হইল। যথা হারমিয়নী পরম পবিত্রা, তাহাতে দোষ লেশের সম্পর্কও নাই, পলিক্‌সেনিস্‌ সম্পূর্ণ নির্দোষ, কেমিলো অতি ধার্ম্মিক প্রজা, লিয়নিতিস্‌ অলীক শঙ্কা পিশাচীর পরবশ হইয়াছে। যাহা হউক স্বদোষে যাহা হারাইয়াছে তাহা পুনঃপ্রাপ্ত না হইলে উত্তরাধিকারি বিহীন হইবেক। কিন্তু মহীপতি মহান্তের এতাবদ্বচনে বিশ্বাস না করিয়া কহিলেন এ সমস্ত কল্পিত কথা, রাণীর সুহৃদ্বর্গ কৃত্রিমতা পূর্ব্বক এই লিপি বিরচিত করিয়া থাকিবেক। অতএব বিচারক গণকে পরীক্ষায় প্রবৃত্ত হইতে আজ্ঞা দিলেন। রাজা যৎকালে ঐ প্রকার উক্তি করিতেছিলেন তখন এক ব্যক্তি উপস্থিত হইয়া নিবেদন করিল ভূপালবালক মেমিলস্ জননীর পরীক্ষা সংবাদ শ্রবণে ত্রপা ও পরিতাপে সন্তাপিত হইয়া আত্মহত্যা পূর্ব্বক প্রাণত্যাগ করিলেন।

 নৃপ রমণী হারমিয়নী পরম স্নেহাস্পদ প্রিয় তনয়ের শোকাবেগে প্রাণ বিয়োগের কথা কর্ণ কুহরে প্রবিষ্ট হইবামাত্র ব্যাকুলা হইয়া ছিন্ন তরুর তুল্য ধরায় নিপতিতা ও মূর্চ্ছাপন্না হইলেন। রাজাও নন্দনের নিধন শ্রবণে হৃদয় মধ্যে শল্য বিদ্ধ প্রায় হইয়া সাতিশয় কাতর হইলেন। তদনস্তর রাণীর প্রতি করুণোদয় হওয়াতে পালিনা ও অন্যান্য সমভিব্যাহারিণী নারী দিগকে অনুমতি করিলেন স্থানান্তরে লইয়া রাজ্ঞীর শুশ্রূষা কর। কিন্তু পালিনা নৃপমহিলাকে