পাতা:স্বর্ণ-শৃঙ্খল নাটক.pdf/৪০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্বর্ণ-শৃঙ্খল নাটক । ২ ৭ আমার হস্তে ভাণ্ডার সমর্পণ করিয়াছিল । সে ভাণ্ডার বর্ণনাতীত ! সূৰ্য্যকাস্ত চন্দ্রকণস্ত অয়স্কান্ত নীলকাস্ত আদি মণি সকল, গজমুক্ত হীরক প্রবলাদি হুমূল্য রত্ন সমূহ, স্থানে স্থানে স্ত,পে স্তপে পৰ্ব্বতাকার রহিয়াছে। স্বর্ণ রজত যথার্থই অসংখ্য ; লক্ষ,কোটি, অৰ্ব্বদ শঙ্খ, পদ্ম, খৰ্ব্ব, নিখৰ্ব্ব, ইত্যাদি কোন সংখ্যাতেই তার ইয়ত্ত হয় না । এ সকল ধন আমি স্বহস্তে অবাধে দান করিয়াছি । প্রথম আমি মনে করিলাম যে,পাণ্ডবেরা যেমন কুটিল ভাবে আমার হস্তে ভাণ্ডার সমর্পণ করিয়া দানের ভার দিয়াছে, আমি অপরিমিত দাম দ্বারা শীঘ্রই ভাণ্ডার শূন্ত করিয়! তাহণদের অপমান করিখ যে, অণর যেন দান শোগুতার গৰ্ব্ব না করে । কিন্তু পিতঃ ! কি আশ্চর্য্য আমি যত দান করি, ভাণ্ডার শষ্ঠ হওয়৷ দুরে থাকুক, কি অচিস্তনীর উপায় দ্বারা যে অর্জুনের অক্ষয়তুণের ন্যায় ভাণ্ডার সততই পূর্ণ থাকে, তাহ কিছুই নিরীকরণ করিতে পারিলাম না । এদিকে এক ব্রাহ্মণকে আমি কুবেরের সম্পত্তি বিতরণ করি, অন্যদিকে এক রাজা তার শতগুণ উপঢৌকন দ্বার। ভাণ্ডার পরিপূর্ণ করে । এইরূপ কত রাজা কত দিগ্বিদিক হইতে উপঢৌকন দিতেছে, তাহার অন্তও নাই বিচ্ছেদও নাই । আর পিতঃ ! ব্রাহ্মণভোজনের কথ! কি কহিব ? বিবেচনা করুন, লক্ষৈক ব্রাহ্মণভোজন হইলে একবার শঙ্খধ্বনি হয়, এরূপ শঙ্খ প্রতি মুহূৰ্ত্তে ধ্বনিত হইতেছে । ব্রাহ্মণের চব্য চোস্য লেহ পেয় চতুৰ্ব্বিধ প্রকারে কটু কষায় অস্ত্র তিক্ত লবণ মধুর প্রভূতি যড় রসে তেজি ত, বিদ্যা পরীগণ কর্তৃক সেলিত, বাসনাতীত দানপ্রাপ্তে সন্তোষিত হইয়। উৰ্দ্ধ