পাতা:হলুদ পোড়া - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/১৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

হলুদ পোড়া Syno. অধরের মাথা ঠক্‌ ঠক্‌ করিয়া কঁাপিতেছিল, কিন্থানার চাদরটা দুই হাতেৰু শীর্ণ আঙ্গুলো মুঠা করিয়া ধরিয়া ভীতস্বরে অধর বলিল, ও যেই হােক, ওকে অত জোরে নিশ্বাসু নিতে বারণ কর রাধা। না হয় তুমি Vse k89 | 一 রাধা মৃদুস্বরে বলিল, উনি আমাদের প্রতিবেশী। তোমায় দেখতে caV"て販={I অধরা যেন এই সংক্ষিপ্ত জবাবটিরই• প্ৰতীক্ষা করিতেছিল। একমুহূৰ্ত্তে তাহার সকল উত্তেজনার পরিসমাপ্তি হইয়ু গেল। নিজীবের মত বালিশে ঢলিয়া পড়িয়া বলিল, আমার ঘরে ওকে কেন আনলে রাধা ? এতো। ওর প্রতিবেশীর ঘর নয়। এ ঘরে কথা নেই, হাসি নেই, চোখে চোখে চাওয়া নেই, শুধু আছে। অন্ধকার। এ ঘরে উনি ছাপিয়ে উঠবেন। পরস্পরের চোখে চাহিয়া”দু’জনে অন্ধের কথা শুনিতেছিল, রাধা চোখ নামাইয়া নিল। শান্ত কণ্ঠে বলিল, উনি বুড়ো মানুষ, এ সব অনুখের বিষয়ে অনেক বোঝেন শোনেন, তাই এসেছেন। উনি এলে আমি অনেক ভরসা পাই। • অধর নিশ্বাস ফেলিয়া বলিল, অকাকু বৃদ্ধের অসুখ বুঙ্কো মানুষেরা বোঝে না। রাধা। তাদূের অভিজ্ঞতা নেই। এই বলিয়া অভ্যস্ত ভাবে প্ৰথমে দুই হাতে বুক চাপিয়া ইর্ষা করিয়া নিশ্বাস্ট নিবার চেষ্টায়ু, হাঁপাইয়া উঠিয়া সে কাসিতে আরম্ল-করিল। প্ৰত্যেকটি কাসির সঙ্গে সমস্ত চৌকী এমন ভাবে নড়িতে লাগিল যে হেরম্ব বুঝিতে পারিল না। রাধার সর্বাঙ্গ ঠিক কি কারণে কঁপিয়া উঠিতেছে। হু কাটা রাধা হেরম্বের হাতে দিয়াছিল। কলিকার আগুণ BDBDBS DDD DDDS KDB gB g LDBDB DDBDB BBB