পাতা:হিন্দুধর্ম্মের নবজাগরণ - দ্বিতীয় সংস্করণ.pdf/১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


...}, . .* ’’ہ:نبی ہندس ------ ۔: ۔ ... " " . . વાદક) き হিন্দুধৰ্ম্মের সার্বভৌমিকতা সরঞ্জ প্রভৃতি বৈদিকমন্ত্র উচ্চারণ সহকারে ভিন্ন ভিন্ন রূপদ বেদীযুক্ত বিভিন্ন যজ্ঞে নানাবিধ আহুতি দ্বারা প্রাপ্য ফলসমূহ যতই বাঞ্ছনীয় হউক, সমুদয়ই ভোগৈকফল ; আর কেহই কখন এগুলি মোক্ষজনক বলিয়া তর্কে প্রবৃত্ত হয় নাই। সুতরাং, আধ্যাত্মিকতা ও মোক্ষমাগের উপদেশক জ্ঞানকাণ্ড, যাহা আরণ্যক বা শ্রীতিশির বলিয়। কথিত হয়, তাহাই ভারতে চিরকাল শ্রেষ্ঠ আসন অধিকার করিয়াছে ও চিরকাল করিবে । সনাতন ধৰ্ম্মের নানামতমতান্তররূপ গোলকধাধায় দিগভ্রান্ত, একমাত্র যে ধৰ্ম্মের সাৰ্ব্বজনীন উপযোগিতা, তৎপ্রচারিত অণেরণীয়ান মহতো মহীয়ান ব্রহ্মের অবিকল প্রতিবিম্বস্বরূপ—পূৰ্ব্বভ্রান্তসংস্কারবশবৰ্ত্তী হইয়া তদ্ধৰ্ম্মমৰ্ম্মবোধে অক্ষম, জড়বাদসর্ববস্ব জাতির নিকট ঋণসূত্রে প্রাপ্ত আধ্যাত্মিকতার মানদণ্ডাবলম্বনে অন্ধকারে অন্বেষণপরায়ণ, আধুনিক হিন্দুযুবক বৃথাই তাহার পূর্বপুরুষগণের ধৰ্ম্ম বুঝিতে চেষ্টা করেন এবং হয় ঐ চেষ্টা একেবারে পরিত্যাগ করিয়া ঘোর অজ্ঞেয়বাদী হইয়া পড়েন অথবা স্বাভাবিক ধৰ্ম্মভাবের প্রেরণায় পশুজীবনযাপনে অসমর্থ হইয়া প্রাচ্যগন্ধী বিবিধ পাশ্চাত্য জড়বাদের নির্য্যাস অসাবধানে পান করেন এবং শ্রীতির এই ভবিষ্যদ্বাণী সফল করেন ঃ– &