পাতা:হিন্দুধর্ম্মের নবজাগরণ - দ্বিতীয় সংস্করণ.pdf/৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভারতবন্ধু অধ্যাপক ম্যক্সমুলার যশস্পেহারূপ গুপ্ত অভিসন্ধি আছে, আর বাকি এক আনার মধ্যে তিন পাই লোকের অবস্থা ডাক্তার কবিরাজের বিশেষ আলোচনার বিষয় বটে, কিন্তু দার্শনিক "গণের নহে । আমাদের প্রথম ও প্রধান প্রয়োজন—চরিত্র গঠন— যাহাকে প্রতিষ্ঠিত প্রজ্ঞা বলা যায়। ইহা যেমন প্রত্যেক ব্যক্তির আবশ্যক, ব্যক্তির সমষ্টি সমাজেও তদ্রুপ। জগৎ প্রত্যেক নূতন উদ্যমের উপর, এমন কি, ধৰ্ম্মপ্রচারের নূতন উদ্যমের উপরও সন্দেহের চক্ষে দেখিয়া থাকে বলিয়া বিরক্ত হইও না । তাহাদের অপরাধ কি ? কত বার কত লোকে তাহাদিগকে প্রতারিত করিয়াছে। যতই সংসার কোন নূতন সম্প্রদায়ের দিকে সন্দেহের দৃষ্টিতে দেখে, অথবা উহার প্রতি কতকটা বৈরিভাবাপন্ন হয়, উহার পক্ষে ততই মঙ্গল । যদি এই সম্প্রদায়ে প্রচারের উপযুক্ত কোন সত্য থাকে, যদি বাস্তবিক কোন অভাবমোচনের জন্যই উহার জন্ম হইয়া থাকে, তবে শীঘ্রই নিন্দ প্রশংসায় এবং ঘৃণা প্রীতিতে পরিণত হয়। আজ কাল লোকে প্রায় ধৰ্ম্মকে কোনরূপ সামাজিক বা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সাধনের উপায় স্বরূপে লইয়া থাকে। এ বিষয়ে সাবধান থাকিবে । ধৰ্ম্মের উদ্দেশ্য ধৰ্ম্ম । যে ধৰ্ম্ম কেবলমাত্র সাংসারিক মুখের উপায় স্বরূপ, তাহা আর Woł