পাতা:১৫১৩ সাল.pdf/১০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৮৪
১৫১৩ সাল।

 হরিশের কথাগুলি সকলেই একাগ্ৰচিত্তে শুনিলেন। তাহার বক্তব্য শেষ হইলে পর সভাপতি মহাশয় উঠিয়া আমাদিগের সকলের আন্তরিক ধন্যবাদ তাহাকে জ্ঞাপন করিলেন। তৎপরে আমাদিগের লাভ ও ক্ষতির এক হিসাব ধরা হইল। যতটা সুবৰ্ণ কলিকাতায় পাঠান হইয়াছিল—তাহার ও যতটা আমাদিগের কার্য্যস্থলে জমা ছিল, তাহার মূল্য ধরা গেল। তাহা হইতে জাহাজ প্ৰস্তুতের ব্যয়, বেতন, ইত্যাদি বাবত সমুদায় খরচ-খরচা বাদ দিয়াও প্রত্যেক অংশীদারের প্রদত্ত মূলধন উঠাইয়া লইয়াও দেখা গেল যে, আমরা নিট্ তিন লক্ষ টাকা লাভ পাইয়াছি। একজন অংশীদার প্রস্তাব করিলেন যে, ঐ টাকা অংশীদারগণের শেয়ারের মূল্যানুযায়ী তাহাদিগের মধ্যে ভাগ করা হউক। বন্ধুবর ইহাতে আপত্তি করিয়া বলিলেন:—

 “তাহা হইতে পারে না। যে সকল নিরপরাধ কর্ম্মচারীরা আমাদিগের কার্য্যে জীবন বিসর্জ্জন করিয়াছে, তাহাদিগের অসহায় স্ত্রী-পুত্ৰদিগের অন্নসংস্থাপন করিয়া দিতে আমরা লোকতঃ ধর্ম্মতঃ বাধ্য। আর এক ব্যক্তি (হরিশকে দেখাইয়া) আমাদিগের কি মহৎ উপকার করিয়াছে, তাহা বাক্যের দ্বারা প্ৰকাশ করা অসম্ভব। তাহার নিকট আমরা চিরঋণী থাকিব। ঐ ঋণ পরিশোধ হইবার নহে। তবুও আমি প্ৰস্তাব করিতেছি যে, আমাদিগের কৃতজ্ঞতার নিদর্শন স্বরূপ তাহাকে এক লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়া হউক।”

 ইহাতে কাহারও আপত্তি হইল না। সকলেই ইহা একবাক্যে অনুমোদন করিলেন। তৎপরে তাঁহার অপর প্রস্তাবও গৃহীত হইল। পর প্রস্তাব আমাদিগের দুইজনের প্রতি vote of confidence পাস করা। তাহাও সাহ্লাদে সকলে পাশ করিলেন।

 শেষ প্রস্তাব এইরূপ ছিল, “যখন নিঃসন্দেহে ইহা প্ৰমাণিত হইয়াছে যে সমুদ্ৰ হইতে সুবর্ণ উৎপাদন করা যাইতে পারে এবং