পাতা:১৯০৫ সালে বাংলা.pdf/৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ १> | সভাপতি মিঃ এ রস্কল মহোদয়ের অভ্যর্থনার জন্য প্রত্যেক ষ্টীমার ষ্টেশনই স্থানীয় অধিবাসীগণের দ্বারা পত্রপুষ্প কদলীবৃক্ষে ও আম্র পল্লবে সজ্জিত হইয়াছিল। স্বতন্ত্র পথে । খুলনার পথে এই । নারায়ণগঞ্জের পথে স্বরেন্দ্রনাথের ষ্টীমারে আরও উৎসাহপূর্ণ দৃশ্ব পরিলক্ষিত হইয়াছিল। ফরিদপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ প্রভৃতি স্থানের প্রতিনিধিবর্গ এই জাহাজেই কোন প্রকারে স্থান করিয়া লইয়াছিলেন। “বন্দেমাতরম" ধ্বনির সহিত “সুরেন্দ্রনাথের জয়’ ‘স্বরেন্দ্রনাথের জয়” ইত্যাদি ধ্বনি সৰ্ব্বত্র পরিশ্রত হইয়াছিল । কুমারীগণ মঙ্গল শঙ্খ নিনাদিত করিয়া তাহার অভ্যর্থনা করিয়াছিলেন। মুসলমানেরাও দলবদ্ধ হইয়া প্রায় প্রত্যেক ষ্টীমার ষ্টেশনেই সুরেন্দ্রবাবুর প্রতিনিধিবর্গের অভ্যর্থনার জন্য সাগ্রহে সমবেত হইয়াছিলেন । স্বরেন্দ্রনাথকে দেখিবার জন্ত সকলেরই বিশেষ ব্যগ্রতা প্রকাশ পাইয়াছিল। ইদিলপুর ষ্টেশনের দৃশুই অধিকতর চিত্তাকর্ষক হইয়াছিল। সেখানকার লোকেরা ৫ খানি নৌকা “বন্দে মাতরম", Long live our Banerjee, wfwttW$ <fgtJ দীর্ঘজীবী হউন ইত্যাদি শব্দাঙ্কিত পতাকা নিচয়ে সজ্জিত করিয়৷ ষ্টীমারের নিকট উপস্থিত হইয়াছিলেন এবং পুষ্পমাল্যে স্বরেন্দ্রনাথ ও র্তাহার সহগামী প্রতিনিধিদিগকে ভূষিত করিয়াছিলেন। নৌকাগুলি স্থানীয় ভদ্র মহোদয়গণে এরূপ পরিপূর্ণ হইয়াছিল যে, নৌকায় তিল ধারণের