পাতা:১৯০৫ সালে বাংলা.pdf/৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


tro স্থান ছিল না । নৌকাস্থিত মহোদয়ের ষ্টীমারে উঠিয়া “বন্দে মাতরম" প্রভৃতি শব্দাঙ্কিত পতাকা দিয়া ষ্টিমারটিকে সজ্জিত করিয়াছিলেন। স্বরেন্দ্রনাথের অনেক সহযাত্রী তাহার সম্মানের অংশ পাইয়াছিলেন ।

  • রাজেন্দ্র সঙ্গমে

দীন যথা যায় দূর তীর্থ দরশনে ৷” র্তাহার সঙ্গে অনেকে সেইরূপ স্বখে বরিশালে গমন করিয়া ছিলেন । কতদূর হইতে কত প্রবীণ অশীতিপর বৃদ্ধ স্বরেন্দ্র বাবুকে দেখিতে আসিয়াছিলেন ভাবিলে হৃদয় আননে আপ্লুত হয় । কৃষক বালিকা হইতে অধ্যাপক ব্রাহ্মণ পণ্ডিতেরা পৰ্য্যন্ত নদীর তীরে সারি দিয়া দাড়াইয়াছিলেন । র্তাহাদিগের সকলের নিকটেই স্বরেন্দ্র বাবুর এক নিবেদন—“আপনার স্বদেশী বস্তুর প্রচার ও ব্যবহার করুন, বিদেশী দ্রব্যের পরিবর্জন করুন।” বরিশালে পদার্পণ । শুক্রবার রাত্রি আটটার সময় কলিকাতা, যশোহর, খুলনা, ঢাকা, রংপুর, বগুড়া, প্রভৃতি স্থানের প্রতিনিধিগণকে লইয়া ষ্টিমার বরিশালে উপস্থিত হইল। ষ্টীমার ঘাটে লাগিবামাত্র সমাগত প্রতিনিধিগণ উচ্চ কণ্ঠে “বন্দে মাতরম্ " ধ্বনি করিলেন। তীরে বরিশালের মান্তগণ্য লোকের তাহাদিগের অভ্যর্থনার জন্ত