পাতা:Bharatkosh 1st Vol.pdf/১১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


________________

অনধ্যায় প্রথম এই মিত্ৰতা স্বীকার করেন। মহীশূর এবং মারাঠা শক্তিকে এই মিত্ৰতায় আবদ্ধ করিতে ওয়েলেসলিকে যুদ্ধ পর্যন্ত করিতে হইয়াছিল। স্যর টমাস মরো প্রমুখ অনেকে এই নীতির অত্যন্ত বিরােধী ছিলেন। তাঁহাদের মতে ইহার দ্বারা অযােগ্য রাজা ও রাজবংশকে চিরস্থায়ী করার ব্যবস্থা হইয়াছিল। বিজনকান্তি বিশ্বাস অধ্যাত্ম রামায়ণ ব্ৰহ্মাণ্ডপুরাণের অন্তর্গত বলিয়া কথিত শিব-পার্বতীর কথােপকথন আকারে বিরচিত সপ্তকাণ্ডাত্মক রামায়ণ। রামকাহিনী-বৰ্ণন প্রসঙ্গে ইহাতে মুক্তির সাধনরূপে রামভক্তির মাহাত্ম্য বিবৃত হইয়াছে। গ্রন্থের ‘রামহৃদয়’ ও ‘রামগীতা অংশ দুইটি রামভক্তগণের মধ্যে বিশেষ প্রসিদ্ধ। গ্রন্থখানি চতুর্দশ-পঞ্চদশ শতাব্দীর রচনা বলিয়া অনুমিত হয়। তারাপ্রসন্ন ভট্টাচার্য অনগ্রসর শিশু বুদ্ধি দ্র তানঙ্গপাল ছত্রিশটি প্রধান রাজপুত বংশের অন্যতম তােমর বা ভূয়ার বংশীয় নৃপতি। চারণগীতিতে তাহাকে বর্তমান দিল্লী নগরীর প্রতিষ্ঠাতারূপে বর্ণনা করা হইয়াছে। ‘পৃথ্বীরাজ রাসাে’ নামক বিখ্যাত গ্রন্থে লিখিত আছে যে অনঙ্গপাল তঁাহার দৌহিত্র পৃথ্বীরাজকে দিল্লীর সিংহাসনে তাঁহার উত্তরাধিকারী নির্বাচিত করেন। অবশ্য ইহার | সত্যতা সম্বন্ধে সন্দেহের অবকাশ আছে। সৌরীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য অনঙ্গব সিদ্ধাচার্য দ্র অন্যায় আনুষ্ঠানিক অধ্যয়ন বর্জন বা ছুটি। নানা উপলক্ষে শাস্ত্রে অধ্যয়ন বর্জনের বিধান আছে। পঞ্জিকায় অনেকগুলি অনধ্যায়ের উল্লেখ আছে। এখন পর্যন্ত টোলে | শাস্ত্রের নির্দেশমত কতকগুলি অধ্যায় মানিয়া চলা হয়। মূলতঃ বেদাধ্যয়ন সম্পর্কে অনধ্যায়ের সূচনা হইলেও অন্যান্য শাস্ত্র সম্পর্কেও ইহার কিছু কিছু প্রচলন দেখা যায়। সাধারণতঃ প্রতিপদ অষ্টমী চতুর্দশী পূর্ণিমা ও অমাবস্যায় অধ্যয়ন নিষিদ্ধ। এয়ােদশীর দিন রাত্রিতে ব্যাকরণ অধ্যয়ন বর্জনীয়। কোনওরূপ চিত্তবিক্ষেপের কারণ ঘটিলেই অধ্যয়নত্যাগের নির্দেশ ছিল। ঝড়-বৃষ্টি মেঘগর্জন বজ্রপাত উল্কাপাত ভূমিকম্প চন্দ্রগ্রহণ সূর্যগ্ৰহণ ধূলিবর্ষণ অগ্নিকাণ্ড আশেপাশে যুদ্ধারম্ভ যুদ্ধাস্ত্রের শব্দ শ্রবণ প্রভৃতি ব্যাপারে এক বা একাধিক দিন অধ্যায়ের ব্যবস্থা ছিল। কান্নার