পাতা:Bharatkosh 1st Vol.pdf/৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


________________

অণুবীক্ষণ যন্ত্র অথবা অনেকগুলি লেন্সের সমন্বয়ে নির্মিত একটি অভিসারী লেন্সের দ্বারা গঠিত একটি সরল অণুবীক্ষণ। | ঠিক কবে অণুবীক্ষণের মূল নীতি আবিষ্কৃত হইয়াছিল | তাহা সকলেরই অজানা। কথিত আছে, প্রাচীনকালে চীন দেশে এবং ভূমধ্যসাগরের চতুপার্শ্বের সুসভ্য অঞ্চলে | চশমা হিসাবে বিবর্ধক কাচ ব্যবহৃত হইত। ১৫৯০ খ্রীষ্টাব্দে জ্যাকেরিয়া জানসেন নামে একজন ওলন্দাজ চশমা| নির্মাণকারী ৬ ফুট লম্বা এবং দুইটি লেন্সযুক্ত একটি যৌগিক অণুবীক্ষণ নির্মাণ করেন। পরবর্তীকালে বিভিন্ন দেশে এইরূপ অণুবীক্ষণ নির্মিত হয়, কিন্তু সেই সব যন্ত্র ছিল- গােলাপেরণ (spherical aberration) এবং বর্ণাপেরণ দোষে দুষ্ট ( যে বিন্দুগুলি দিয়া আলােক রশ্মি গেলে স্পষ্ট প্রতিবিম্বের সৃষ্টি করে-- সেই বিন্দু হইতে আলাের বিচ্যুতিকে অপেরণ বলে)। কার্যপ্রণালী ক সাধারণ অনুবীক্ষণ একটি উত্তল | লেন্স বা অভিসারী লেন্সের ফোকাস-দূরত্বের মধ্যে কোনও বস্তু রাখিলে একই পার্শ্বে বস্তুটির বিবর্ধিত অলীকবিম্ব সৃষ্ট হয়। লেন্সের পিছনে চোখ রাখিলে বিম্বটি সহজেই দেখা যায়। লেন্স হইতে বস্তু-দূরত্ব ঠিক করিয়া বিম্বটিকে স্পষ্ট | দর্শনের নিকটতম দূরত্বে আনা হয় কারণ তখনই বস্তুটির বিবর্ধন সর্বাপেক্ষা বেশি। ছােট লেখা বা পুথি পড়িবার সময়ে যে বিবর্ধক কাচ ব্যবহার করি তাহা এই ধরনের । ১. বিবধিত অলীকবি ২. বস্তু ৩. অভিসারী লেন্স। খ. যৌগিক অণুবীক্ষণ বস্তু অত্যন্ত ক্ষুদ্র হইলে | যৌগিক অণুবীক্ষণের ব্যবহার সুবিধাজনক। কারণ এই যন্ত্রের বিবর্ধনক্ষমতা সরল অণুবীক্ষণ অপেক্ষা বেশি। ইহাতে কোনও ধাতব নলের দুই প্রান্তে দুইটি অভিসারী লেন্স সম-অক্ষীয় (co-axial) অবস্থায় নির্দিষ্ট দূরত্বে আবদ্ধ | থাকে। উহাদের মধ্যকার দূরত্ব অবশ্য পরিবর্তন করা যায়। লেন্স দুইটির একটির নাম অবজেকটিভ বা অভিলক্ষ্য এবং অপরটি আই-পিস্ বা অভিনেত্র। অভিলক্ষ্য বা অবজেকটিভ কার্যতঃ কয়েকখানি লেন্স দ্বারা গঠিত স্বল্প ফোকাস-দূরত্বের একখানি অভিসারী লেন্স। ইহাকে