পাতা:Manifest der kom Partei 1848-1.djvu/৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কমিউনিস্ট পার্টির

ইশতেহার



 একটা ভূত ঘুরে বেড়াচ্ছে ইউরোপে — সাম্যবাদের ভূত। পুরনো ইউরোপের সমস্ত শক্তি মিলিত হয়ে এই ভূত তাড়াবার লক্ষ্যে গড়ে তুলেছে পবিত্র এক জোট — পোপ থেকে জার, মেটেরনিখ থেকে গুইজো, ফরাসি চরমপন্থী থেকে জার্মান পুলিস, সবাই সামিল তাতে।
 এমন কোন্‌ বিরোধীদল রয়েছে, সরকারপক্ষের কাছ থেকে যাদের কমিউনিস্ট বলে গালমন্দ শুনতে হয়নি? এমন বিরোধীদলই বা কোথায়, যারা আরও এগিয়ে থাকা বিরোধীদের বা এমনকী প্রতিক্রিয়াশীল বিপক্ষদেরও সাম্যবাদী বলে চিহ্নিত করে ফিরতি ছুঁড়ে মারেনি সেই একই গালি?
 এই তথ্য থেকে দু'টি বিষয় বেরিয়ে আসে।
 সাম্যবাদ ইতিমধ্যেই সমস্ত ইউরোপীয় শক্তির কাছেই একটি শক্তি হিসেবে স্বীকৃত।
 সময় এসে গেছে যখন সমস্ত দুনিয়ার সামনে এবার প্রকাশ্যে তুলে ধরা দরকার সাম্যবাদীদের দৃষ্টিভঙ্গী কী, লক্ষ্য কী, তাদের ঝোঁকই বা কোন্‌ দিকে এবং এই সাম্যবাদের ভূতের আষাঢ়ে গল্পটির মোকাবিলা করার জন্য প্রয়োজন সরাসরি দলের পক্ষ থেকে একটি ইশতেহারের।
 এই লক্ষ্যেই বিভিন্ন জাতির সাম্যবাদীরা লন্ডনে সমবেত হয়ে নিম্নলিখিত ইশতেহারটি রচনা করেছে এবং ইংরেজি, ফরাসি, জার্মান, ইতালীয়, ফ্লেমিশ ও ডেন ভাষায় এটি প্রকাশিত হবে।

১.

বুর্জোয়া এবং প্রলেতারিয়েত


 আজ পর্যন্ত ইতিহাসে যত সমাজ দেখা গেছে, তাদের সকলেরই ইতিহাস শ্রেণি সংগ্রামের ইতিহাস।
 স্বাধীন মানুষ ও দাস, অভিজাত শ্রেণি ও সাধারণ মানুষ, সামন্ত ও ভূমিদাস, গিল্ডের সদস্য ও সাধারণ কারিগর - এক কথায় অবদমনকারী ও অবদমিতরা পরস্পরের বিরুদ্ধ অবস্থানেই থেকেছে, চালিয়েছে অবিরাম সংগ্রাম, কখনও প্রকাশ্যে আবার কখনও বা চক্ষুর অন্তরালে; এমন এক সংগ্রাম যার শেষ হয়েছে প্রতিবারই সমগ্র সমাজের বৈপ্লবিক পুনর্গঠনের মধ্য দিয়ে, অথবা দ্বন্দ্বরত শ্রেণিগুলির সামগ্রিক অবলুপ্তিতে।
 পূর্ববর্তী যুগগুলির ইতিহাসে আমরা প্রার সর্বদাই দেখি, সমাজে বিভিন্ন শ্রেণির এক জটিল বিন্যাস, সামাজিক অবস্থানের বহুবিধ ধাপ। প্রাচীন রোমে আমরা দেখা পাই অভি-